এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > সোমেন মিত্রর হাত ধরে কংগ্রেসের ভেঙে পড়া সংগঠনের হাল ফিরছে, তৃণমূলের সংখ্যালঘু ভোট নিয়ে দুশ্চিন্তা বাড়বে?

সোমেন মিত্রর হাত ধরে কংগ্রেসের ভেঙে পড়া সংগঠনের হাল ফিরছে, তৃণমূলের সংখ্যালঘু ভোট নিয়ে দুশ্চিন্তা বাড়বে?

Priyo Bandhu Media

অধীর চৌধুরীকে সরিয়ে বাংলার প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি পদে সোমেন মিত্রকে বসানোর পর থেকেই এই রাজ্যে ধীরে ধীরে কংগ্রেসের সংগঠনের পালে কিছুটা হলেও হাওয়া লাগতে শুরু করেছে। এমনকি দলের পুরোনো নেতাকর্মীরাও সক্রিয় শুরু করেছেন।

দলীয় সংগঠনে ধ্বস নামার সময় রাজ্যের একের পর এক হেভিওয়েট কংগ্রেস বিধায়ক এবং নেতারা যোগ দিয়েছিলেন শাসক দল তৃণমূলে। কিন্তু সভাপতির চেয়ারে বসে সোমেন মিত্র দাবি করেন যে, দল বদল করা কংগ্রেসের নেতা কর্মীরাও ফের কংগ্রেসে ফিরে আসবেন। আর সোমেন বাবুর সেই কথাকে কিছুটা হলেও সত্যি করে কদিন আগেই প্রাক্তন বিধায়ক তথা রাজ্যের সংখ্যালঘু মুখ বলে পরিচিত আব্দুস সাত্তার যোগ দিয়েছেন কংগ্রেসে।

এখানেই এখন প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে যে তাহলেই রাজ্যের সংখ্যালঘু ভোট কি ধীরে ধীরে কংগ্রেসের দিকে আসতে চলেছে? বিশেষজ্ঞদের মতে, এই রাজ্যের মালদা, মুর্শিদাবাদ, আমডাঙ্গা আমতার মত সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে এখনও কংগ্রেসের প্রভাব রয়েছে।

ফলে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে এই এলাকার সংখ্যালঘু ভোট পেতে পারে হাত শিবির। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, এই রাজ্যের বেশিরভাগ সংখ্যালঘু ভোটই এখন রয়েছে শাসকদল‌ তৃনমূল কংগ্রেসের দিকে। অন্যদিকে বিজেপিতে খুব একটা এই সংখ্যালঘু ভোট যাবে না। মুর্শিদাবাদ, মালদা, আমডাঙ্গা, আমতায় যদি নিজেদের ঘাঁটিটি আরও শক্ত করে তৈরি করতে পারে কংগ্রেস তাহলে সেখানে সংখ্যালঘু ভোট তাঁরাই পাবে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

আর যার জেরে অনেকটাই চাপে পড়তে পারেন রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। ফলে একদিকে এই রাজ্যের সংখ্যালঘু ভোট নিজেদের ঝুলিতে রাখতে যেমন ঘুরে দাঁড়াতে হবে কংগ্রেসকে, ঠিক তেমনি কংগ্রেস নয়, নিজেদের দখলে সংখ্যালঘু ভোট টিকিয়ে রাখতে ঠিক কি করে রাজ্যের শাসকদল সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!