এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > সিঙ্গুরে তাপসী মালিকের মূর্তির জরাজীর্ণ অবস্থা, জোর বিতর্ক!

সিঙ্গুরে তাপসী মালিকের মূর্তির জরাজীর্ণ অবস্থা, জোর বিতর্ক!

2011 সালে ক্ষমতায় আসার আগে সিঙ্গুরের আন্দোলন তৎকালীন বিরোধী নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ক্ষমতার অনেকটা কাছাকাছি পৌঁছে দিয়েছিল। সেদিনের সেই আন্দোলনে তাপসী মালিকের উনুনের ভেতরে থাকা দগ্ধ মৃতদেহ বেরিয়ে আসলে তাঁকে ইস্যু করে সেই সময়কার বাম সরকারের বিরুদ্ধে প্রবল আন্দোলন শুরু করেছিলেন আজকের মুখ্যমন্ত্রী।

কিন্তু সময় থেমে থাকে না। আর তাইতো যে তাপসী মালিককে নিয়ে আন্দোলন করে ক্ষমতায় এসেছিল তৃনমূল, সেই তাপসী মালিক এখন তাদের কাছে ব্রাত্য বলে দাবি সিঙ্গুরের মানুষদের। তাপসী মালিককে শ্রদ্ধা জানাতে সিঙ্গুরে তার মূর্তি তৈরি হলেও পরিচর্যার অভাবে এখন সেই মূর্তি জঙ্গলে ঢেকে গিয়েছে। যা নিয়ে উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন।

 

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় তাপসী মালিকের সেই মূর্তির জঙ্গল দিয়ে ঘেরা ছবিটি ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। আর সেই ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলে ধরেই অনেকে প্রশ্ন করছেন। সিঙ্গুর নামে একটি ফেসবুক পেজ থেকে ,এবং টিচার্স দের ফেইসবুক পেজ ও নানা পেজ থেকে ও এই পোস্ট ঘুরে বেড়াচ্ছে। সিঙ্গুরের পেজ থেকে প্রশ্ন তোলাও হয়েছে এই নিয়ে।সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশ্ন তোলা হচ্ছে তৃণমূল সরকার ও মুখ্যমন্ত্রীকে -যাকে ব্যবহার করে নবান্নের 14 তলায় ঠাণ্ডা ঘরে আসন গ্রহণ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এখন সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আর তাপসী মালিকের পোড়া লাশের কোনো প্রয়োজন নেই।

পাশাপাশি তারা তাপসী মালিকের বাবার উক্তিকে তুলে ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় দাবি জানিয়েছে যে, তাপসী মালিকের বাবা এখন চিৎকার করে বলছে যে, তার মেয়ে তৃণমূলীদের ষড়যন্ত্রের শিকার। তার মেয়েকে সিপিএম মারেনি, ওকে তৃণমূলীরাই পুড়িয়ে মেরেছে। আর সোশ্যাল মিডিয়ায় এই সমস্ত কিছু ভাইরাল হতেই এখন প্রবল অস্বস্তিতে পড়েছে রাজ্যের শাসক দল।

অনেকে বলছেন, তাহলে কি শুধুমাত্র ক্ষমতার জন্যই তাপসী মালিককে সেই সময় ব্যবহার করেছিল তৎকালীন বিরোধী দল তথা আজকের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস! এই নিয়ে অবশ্য এখনো পর্যন্ত তৃণমূলের তরফ থেকে অফিসিয়ালি কোনো মন্তব্য করা হয়নি। এখন দেখার তৃণমূল নেতা, বিধায়ক ও মুখমন্ত্রী কিবলেন।

রাজনৈতিকমহলের মতে, তাপসী মালিক তাদের কাছে যদি আবেগই হবে, তাহলে কেন তার মূর্তির পরিচর্যা নেই! নাকি ক্ষমতায় এলেই মানুষ চোখ থাকতেও অন্ধ হয়ে যায়! প্রশ্নটা থেকেই যাচ্ছে

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!