এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > শিবসেনা-এনসিপি সরকারকে সমর্থন নিয়ে চরম দোটানায় কংগ্রেস! ডাকা হল জরুরি বৈঠক

শিবসেনা-এনসিপি সরকারকে সমর্থন নিয়ে চরম দোটানায় কংগ্রেস! ডাকা হল জরুরি বৈঠক

মহারাষ্ট্রের সরকার গঠন এখন অথৈ জলে। বিধানসভার সরকারের মেয়াদ ফুরালেও বিজেপি শিবসেনা সংঘাতে মহারাষ্ট্রের সরকার গঠন ঘিরে জটিলতা চরম আকার ধারণ করেছে। বৃহত্তম দল হিসেবে বিজেপিকে সরকার গঠনের আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল। কিন্তু রবিবার বিজেপি জানিয়ে দিয়েছে, তাঁরা মহারাষ্ট্রের সরকার গঠন করবে না। ফলস্বরূপ দ্বিতীয় বৃহত্তম দল শিবসেনাকে রাজ্যপাল আহ্বান জানিয়েছেন মহারাষ্ট্রের সরকার তৈরি করার জন‍্য। আর এই আহবানে সাড়া দিয়ে শিবসেনা এখন চেষ্টা চালাচ্ছে সরকার গঠন করার জন্য প্রয়োজনীয় সমর্থন জোগাড় করার।

শিবসেনা প্রথমেই সমর্থন জোগাড় করার জন্য প্রস্তাব দিয়েছে এনসিপিকে। কিন্তু এনসিপি আবার কংগ্রেসের সাথে জোট বেঁধে এই নির্বাচনে লড়াই করেছে। তাই এনসিপি সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য কংগ্রেসের পরামর্শ নেওয়ার পক্ষপাতী। যদিও শিবসেনার প্রস্তাবে প্রথমদিকে শরদ পাওয়ার তেমন আপত্তি না জানালেও সোনিয়া গান্ধী এই প্রস্তাব পুরোপুরি নস্যাৎ করে দেন।

কংগ্রেসের আশঙ্কা শিবসেনাদের সমর্থন করলে সংখ্যালঘু ভোটাররা কংগ্রেসের প্রতি বিরূপ মনোভাব বহন করবেন। কিন্তু মহারাষ্ট্রের কংগ্রেস বিধায়করা এই পরিপ্রেক্ষিতে মতামত জানিয়েছিলেন, বিজেপিকে মহারাষ্ট্র থেকে দূরে রাখতে শিবসেনাকে সমর্থন করা অত্যন্ত জরুরি। অন্যদিকে শরদ পাওয়ার কংগ্রেস হাই কমান্ডের সাথে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন শিবসেনাকে সমর্থন করার জন্য। কংগ্রেসের পক্ষ থেকে সোমবার সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর বাড়িতে কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক বসছে। সূত্রের খবর, এই বৈঠকে শিবসেনাকে সমর্থনের ব্যাপারে আলোচনা হবে।

অন্যদিকে, এনসিপির পক্ষ থেকে শিবসেনাকে শর্ত দেওয়া হয়েছে, বিজেপির সঙ্গে সমস্ত যোগাযোগ ছিন্ন করলে তবেই তারা শিবসেনাকে সমর্থন দেবে। শর্ত মেনেই মোদি সরকারের একমাত্র শিবসেনা মন্ত্রী এদিন পদত্যাগ করেন। এদিকে মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের দাবি, শিবসেনা এনডিএ জোট ছেড়ে বেরিয়ে আসার ফলে কংগ্রেস এনসিপি’র সমর্থনের আশা কয়েক গুণ বেড়ে গেল।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

কংগ্রেস হাইকমান্ড শিবসেনাদের সমর্থনের প্রস্তাব প্রাথমিকভাবে নস্যাৎ করে দিলে এনসিপিও তাঁদের সুরে সুর মেলায়। রবিবার শিবসেনা সরকার গড়ার ডাক পাওয়ার পর এনসিপি’র মত বদলেছে। তাঁদের কথায় জানা গেছে, যেকোনো স্থায়ী সরকারকে তাঁরা সমর্থন দিতে প্রস্তুত। ফলে শিবসেনাকে এনসিপির বাইরে থেকে সমর্থনের সম্ভাবনা পুরোপুরি উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। এনসিপির শীর্ষনেতা শরদ পাওয়ার জানিয়েছেন, ‘আমরা কংগ্রেসের সঙ্গে আলোচনা করেই শিবসেনার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেব।’

তবে এই মুহুর্তে কংগ্রেস ও এনসিপি’র সমর্থন পেতে গেলে দীর্ঘদিনের বিরোধীদল শিবসেনাকে অভিন্ন ন্যূনতম কর্মসূচি গ্রহণ করতে হবে। সূত্রের খবর, শিবসেনার এমপি সঞ্জয় রাউত দিল্লিতে শীর্ষ কংগ্রেস নেতৃত্বের সাথে দেখা করে সমর্থন চাইবেন। অন্যদিকে, কংগ্রেসের পক্ষ থেকে তাঁদের বিধায়কদের সুরক্ষিত রাখার জন্য জয়পুরের একটি রিসোর্টে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। শিবসেনাও তাঁদের বিধায়কদের সুরক্ষিত রেখেছে বলে জানা গেছে।

আপাতত মহারাষ্ট্রের জটিল পরিস্থিতি থেকে এই মুহূর্তে উদ্ধারের কোনো খবর নেই। তবে শিবসেনা মহারাষ্ট্রের দ্বিতীয় বৃহত্তম দল হওয়ায় সরকার গঠনের দায়িত্ব এখন তাঁদের। রাজনৈতিক মহলের একাংশের দাবি, বিজেপি শিবসেনার ঘাড়ে সম্পূর্ণ দায়িত্ব দিয়ে লক্ষ্য রাখছে তাঁরা কিভাবে সমস্ত ব্যাপারটি সামলায়। শনিবার অযোধ্যা মামলার রায় বেরোনোর ফলে মহারাষ্ট্রের সরকার গঠনের ব্যাপারটি কিছু সময়ের জন্য ধামাচাপা পড়ে। তবে রবিবার থেকেই সরকার গঠন নিয়ে রীতিমতো জমজমাট ছিল মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক মহল। মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ এখন কোন দিকে মোড় নেবে, সেদিকেই নজর রাখছে তামাম রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!