এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > এবার সবং উপনির্বাচনে কংগ্রেসে না থেকেও কংগ্রেসের প্রচারে মানস ভুঁইয়া

এবার সবং উপনির্বাচনে কংগ্রেসে না থেকেও কংগ্রেসের প্রচারে মানস ভুঁইয়া

দল বদল করে মানসবাবু তৃণমূলে গিয়ে রাজ্যসভার সাংসদ হয়েছেন।আর তার ছেড়ে যাওয়া আসনে এবার তৃণমূলের হয়ে লড়ছেন তাঁর স্ত্রী গীতারানি ভূঁইয়া। আর তাই দলবদল মানসকে হাতিয়ার করেই এবার জোরকদমে প্রচারে নামছে কংগ্রেস।আর তাই গত বিধানসভা ভোটের সময় জোট প্রার্থী তৎকালীন কংগ্রেসে থেকে মানস ভূঁইয়া তৃণমূল নেত্রী বা তৃণমূলের নামে যা যা বলেছিলেন তার একটি ভিডিও তৈরী করা হয়েছে। আর মানস ভূঁইয়া যে কত বড় “দলবদলু নেতা” তা ওই ভিডিওটিকে প্রমান হিসাবে সবংয়ে গিয়ে মানুষদের দেখাবে কংগ্রেস।
যতদূর জানা যাচ্ছে ভিওতে কয়েকটি বিষয় তুলে ধরা হচ্ছে। যেমন
* বিধানসভা ভোটের সময় মানসবাবুর বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ এনেছিল তৃণমূল ,আর তখন মানসবাবু দাবি করেছিলেন যে তৃণমূল ষড়যন্ত্র করে তাঁর ভাবমূর্তি খারাপ করতে খুনের অভিযোগ এনেছে
*. কংগ্রেসের সাথে জোট করেই তৃণমূল ক্ষমতায় এসেছিলো আর তার পর সেই ‘সম্পর্ক ছিন্ন’ করাটা ‘বেইমানি’ বলেও মন্তব্য করেছিলেন মানসবাবু।

এছাড়া তৃণমূলের আনা খুনের মামলায় মানসবাবুর আইনজীবী ছিলেন চিরঞ্জীব ভৌমিক। এবারে তাঁকেই সবংয়ের প্রার্থী করেছে কংগ্রেস। ফলে তিনিও মানুষকে জোরকদমে বোঝাচ্ছেন যে মানুষের সঙ্গে মানসবাবু ‘বিশ্বাসঘাতকতা’ করেছেন। এ ব্যাপারে জোরকদমে প্রচারে নেমেছে কংগ্রেস নেতা- কর্মীরা। ভোটের আগে মানসের বিরুদ্ধে প্রচারে নামছেন কংগ্রেস পরিষদীয় দলনেতা আব্দুল মান্নান এবং প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী।
তাই রাজনৈতিক মহলের ধারণা যে এবার মানসবাবু যতই মুখে বলুন না কেন সবং নিয়ে তিনি মোটেও চিন্তিত নন চিন্তা কিন্তু বাড়াচ্ছে কংগ্রেস ও বিজেপি। কেননা বিজেপিও এই বিষয়টিকেই হাতিয়ার করছে সবং জিততে। তবে এই নিয়ে এখনো পর্যন্ত মানসবাবু তরফ থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!