এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ক্ষমতায় এলে ৭২ ঘন্টার মধ্যে দোষ স্বীকার না করলে ‘মহিষাসুরদের’ এনকাউন্টার হবে: সায়ন্তন

ক্ষমতায় এলে ৭২ ঘন্টার মধ্যে দোষ স্বীকার না করলে ‘মহিষাসুরদের’ এনকাউন্টার হবে: সায়ন্তন

সম্প্রতি রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস নেতাদের এনকাউন্টারের হুমকি দিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেই বিতর্ক থামতে না থামতেই রাজ্য সভাপতির পথে হেঁটে বিস্ফোরক মন্তব্য করে বিতর্কে ঘি ঢাললেন দলের সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু। বৃহস্পতিবার বীরভূমের সিউড়তে দলীয় কর্মসূচী থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের বীরভূম জেলা সভাপতি সহ বিধায়ক অনুব্রত মণ্ডল’কে নাম না করে ‘এক মহিষাসুর’ অ্যাখ্যা দিয়ে তিনি বললেন, ” ”বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর ৭২ ঘণ্টা সময় দেবে। তার মধ্যে সব দোষ কবুল না করলে এনকাউন্টার করে দেব।”

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এই প্রসঙ্গে উত্তপ্রদেশের উদাহরণ টেনে তিনি দাবি করলেন বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের প্রতাপে বিরোধী নেতারা দলে দলে এসে নিজেদের দোষ কবুল করছেন। তাঁর মতে এটা সম্ভব হয়েছে শুধু মাত্র গুলি খেয়ে মরার সম্ভবনার ভয়ে । সায়ন্তন বসু এদিন রাজ্য সরকারকে হুমকি দিয়েই জানালেন বিজেপি ক্ষমতায় এলে বাংলাতেও একই পরিস্থিতি তৈরী হবে। পাশাপাশি ইনি দাবি করলেন এদিন কোনও ঘোষিত কর্মসূচী ছাড়াই জেলাশাসককের দফতরের সামনে জমায়েত করা হয়।

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সেখান থেকেই রাজ্য সরকার সহ রাজ্যের প্রশাসনিক কর্তাদের হুমকি দিয়েই রাজ্যের বিজেপি দলের সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু বললেন, ” পরেরবার মঞ্চ বেঁধে সভা হবে। তখন কেউ মশারি টাঙাতে এলে সেই মশারি পুড়িয়ে দেওয়া হবে। এমনকী জেলাশাসক সেই মশারি বাঁচাতে এলে তাঁকেও পুড়িয়ে দেওয়া হবে। “

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!