এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > সারদা মামলায় গ্রেপ্তার হতে চলেছেন আরেক হেভিওয়েট? আদালতে আবেদনের পথে সিবিআই

সারদা মামলায় গ্রেপ্তার হতে চলেছেন আরেক হেভিওয়েট? আদালতে আবেদনের পথে সিবিআই

অনেকদিন ধরেই জল্পনা চলছিল যে, সারদা তদন্তে কোন হেভিওয়েটকে এবার নিজেদের জালে ফেলবে সিবিআই? এবার সেই জল্পনায় ইতি টানতে চলেছে এই কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। সূত্রের খবর, এই সারদা মামলায় কোলকাতা পুলিশের বর্তমান কমিশনার রাজীব কুমারকে 2017 র 16 আগষ্ট সমন পাঠালে তিনি দুর্গা এবং ছটপুজোর কারনে সেখানে হাজিরা দেননি। আর এরপরেই পাল্টা সেই বছরেরই 3 আগষ্ট ঘটে যাওয়া রোজভ্যালির ক্রোম হোটেলে ভাংচুরের ঘটনায় 23 নভেম্বর সিবিআইয়ের ডিএসপি ব্রতীন ঘোষালকে ডেকে পাঠায় বালিগঞ্জ থানার পুলিশ।

এরপরেও সেই জেরায় সন্তুষ্ট না হয়ে কোলকাতা পুলিশের তরফে ইমেল মারফত এই ঘটনায় 20 টি প্রশ্নের জবাব চাওয়া হয় সিবিআইয়ের যুগ্ম ডিরেক্টর কৃষ্ন এবং বিশেষ অধিকর্তা রাকেশ আস্থানার কাছে। আর কোলকাতা পুলিশের এহেন আচরনের পরিপ্রেক্ষিতে রাজীব কুমারকে জেরায় ডেকে পাঠানোয় তাঁদের আধিকারিকদের ডেকে হেনস্থা করা হচ্ছে বলে সুপ্রিম কোর্টে একটি অভিযোগ করে সিবিআই।

সূত্রের খবর, এরপরও সুপ্রিম কোর্টও এই ভাবে সিবিআই কর্তাদের ডাকা যাবে না বলে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেয় কোলকাতা পুলিশকে। তারপর অনেক জল গড়িয়েছে। সিবিআই সূত্রের খবর, বারবার ডাকা সত্তেও জেরার মুখোমুখি হননি এই রাজীব কুমার। তাই এবার কোলকাতা পুলিশের এই কমিশনার তাদের জেরার মুখোমুখি না হলে আদালতের কাছে সেই রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ারা জারি করতে পারে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। তবে সিবিআই যদি এহেন উদ্যোগ নেয় তাহলে কি হাত পা গুটিয়ে বসে থাকবে রাজ্য?

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই এই ব্যাপারে বর্ষীয়ান আইনজীবী কপিল সিব্বলের সাথে আলোচনাও করেছেন রাজ্যের আইনমন্ত্রী মলয় ঘটক। পাশাপাশি সিবিআইয়ের রাকেশ আস্থানার বিরুদ্ধে একটি মামলার পরিপ্রেক্ষিতে চার্জশিট দেওয়ার কথা ভাবছে রাজ্য পুলিশও। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহের প্রিয় রাকেশ আস্থানাকেই এবার সিবিআইয়ের প্রধান পদে বসানো হতে পারে। তাই কোলকাতা পুলিশের শীর্ষকর্তাকে চাপ দিলে কেন্দ্রের তদন্তকারী সংস্থার হবু শীর্ষ কর্তার বিরুদ্ধে অস্ত্রে শান দিতে চায় রাজ্য।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!