এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > সারদা,নারদার-খোঁচা দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে তীব্র আক্রমন বিজেপি নেতার

সারদা,নারদার-খোঁচা দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে তীব্র আক্রমন বিজেপি নেতার

গরমে একেই হাসফাস অবস্থা রাজ্যবাসীর।এবার সেই রাজ্য রাজনীতেতে শাসকদল তৃনমূলের বিরুদ্ধে বক্তব্য রেখে পুরোনো সারদা,নারদা ইস্যুতে ফের একবার পারদ চড়ালো বিজেপি । গত রবিবার পশ্চিম মেদিনীপুরে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা অবনতিল জেরে খড়গপুর থানা ঘেরাও অভিযানের সিদ্ধান্ত নেয় গেরুয়া শিবির। সেই সভা থেকেই শাসকদল তৃনমূল ও পুলিশকে কটাক্ষ করেন পশ্চিম মেদিনীপুর বিজেপির শ্রমিক সংগঠনের জেলা সভাপতি শংকর দাস। তিনি এদিন পুলিশের বিরুদ্ধে তোপ দেগে বলেন যে রাজ্যের পুলিশ দলদাস পরিবনাতো হয়েছে আর শুধু তাই নয় বিস্ফোরক অভিযোগ আনেন মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তিনি দাবি করেন যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পুলিশকে দলদাসে পরিণত করেছেন। উনি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন আর পুলিশকে কাজে লাগিয়ে দু’হাত ভরে টাকা তুলছেন। সাথে শংকরবাবু জানান যে কেন মুখ্যমন্ত্রী এমন করছেন। ফের থিতিয়ে যাওয়া সারদা, নারদ, রোজ়ভ্যালি-র প্রসঙ্গ টেনে বলেন এখন যেহেতু রাজ্যে সারদা, নারদ, রোজ়ভ্যালি নেই তাই তৃণমূল এখন পুলিশকে দিয়ে তোলা তোলাচ্ছে পার্টি ফান্ডের জন্য। এই নিয়ে তিনি পুলিশকে অনেকগুলি প্রশ্নও ছুঁড়ে দেন। তিনি প্রশ্ন করেন পুলিশ যে বলছে হেলমেটহীন বাইক ধরছি। কিন্তু যদি তাই হয় তবে মামলা না করে কেন টাকা তুলছেন ? সেই টাকার রশিদ নেই কেন ? পুলিশ সত্যি বলুক এই টাকা কোথায় যাচ্ছে ? কার পকেটে ঢুকছে ? ইঙ্গিতটা স্পষ্ট এখানেও নাম না করে শাসকদলের নেতা নেত্রীদের দিকেই আঙ্গুল তুললেন। তিনি এদিন দাবি করেন রাজ্যে গণতন্ত্র নেই। তাই নারী নির্যাতন, ইভটিজ়িং, খুনের ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটছে।পুলিশ অভিযোগ নিচ্ছে না কেননা পুলিশের মদতে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে দাপিয়ে বেরাচ্ছে। তদন্তের নামেও ঘুষ নেওয়া হচ্ছে। পুলিশ রক্ষক হয়ে ভক্ষকে পরিণত হয়েছে। পশ্চিম মেদিনীপুরেও যে একই ভাবে পুলিশ জুলুমবাজি করে রাস্তায় তোলা তুলছে সে অভিযোগ করেন এদিন তিনি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!