এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > সারদার টাকা ফেরানো নিয়ে তৃণমূল সাংসদকে খোঁচা কংগ্রেসের, উঠল প্রশ্ন

সারদার টাকা ফেরানো নিয়ে তৃণমূল সাংসদকে খোঁচা কংগ্রেসের, উঠল প্রশ্ন

Priyo Bandhu Media

লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই চিটফান্ড কাণ্ড নিয়ে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার সক্রিয়তা সকলের নজরে এসেছিল। সারদা কাণ্ডে জড়িত তৃণমূল সাংসদদের জেরার জন্য একের পর এক নোটিশ পাঠিয়েছিল সিবিআই। যে ঘটনাকে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সিবিআইকে ব্যবহার করে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বিরোধী দলকে হেনস্থা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলতে দেখা গিয়েছিল তৃণমূলের একাংশকে।

তবে এই প্যাচের মধ্যে না গিয়ে সম্প্রতি সারদা কাণ্ডে তার নেওয়া সমস্ত টাকা ফেরত দেওয়ার কথা জানিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায়। বস্তুত, সারদার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর ছিলেন এই তৃণমূল সাংসদ। ফলে তার কাছ থেকে বিস্তারিত তথ্য জানতে ইডির তরফে তাকে জেরার জন্য তলব করা হয়েছিল। আর এর মাঝেই একটি চিঠি দিয়ে 29 লক্ষ টাকা ইডির হাতে তুলে দেওয়ার কথা জানান শতাব্দী রায়।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

কেননা ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসেবে সারদা থেকে 42 লক্ষ টাকা নেওয়ার কথা ছিল এই তৃণমূল সাংসদের। কিন্তু টিডিএস কেটে তিনি মোট 29 লক্ষ টাকা পেয়েছিলেন। আর সেই টাকায় তিনি এবার ফেরত দেওয়ার ব্যাপারে ইডিকে চিঠি করেছেন। এদিকে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসেবে নেওয়া টাকা শতাব্দী রায় ফেরত দেওয়ায় তৃণমূল সারদা কাণ্ডে জড়িত বলে রাজ্যের শাসকদলের উদ্দেশ্যে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি সোমেন মিত্র।

এদিন তিনি বলেন, “সারদার টাকা যে তৃণমূল নেতাদের পকেটে আছে, সেটা প্রমাণিত হচ্ছে।” তবে সারদা-কাণ্ড অনেকদিন ধরেই চলছে। দেরিতে হলেও ওনার সুবুদ্ধি হয়েছে বলে জানান প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসেবে শতাব্দী রায়কে ইডির পক্ষ থেকে ডাকার পরই তৃণমূলে সোরগোল উঠতে শুরু করেছিল। যার পরে সেই টাকা ফেরত দেওয়ার কথা জানান এই তৃনমূল সাংসদ। আর এবার সেই প্রসঙ্গ তুলে ধরেই তৃনমূল সারদার সাথে জড়িত বলে সোরগোল তুলে দিলেন প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি সোমেন মিত্র।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!