এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > অবশেষে চুক্তিভিত্তিক শিক্ষকদের জন্য বড়সড় সুখবর – অপেক্ষার অবসান ঘটে বাড়ছে বেতন

অবশেষে চুক্তিভিত্তিক শিক্ষকদের জন্য বড়সড় সুখবর – অপেক্ষার অবসান ঘটে বাড়ছে বেতন

অবশেষে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললেন রাজ্যের চুক্তিভিত্তিক শিক্ষকেরা। সূত্রের খবর, রাজ্যের উচ্চমাধ্যমিকের মোট ৮৫৮ জন শিক্ষকদের প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে পার্শ্বশিক্ষকদের মত তাঁদেরও বেতন বাড়াতে চলেছে রাজ্য সরকার।

কিন্তু ঠিক কত হারে বৃদ্ধি হচ্ছে এই বেতন প্রক্রিয়া? জানা গেছে, এখন এই চুক্তিভিত্তিক শিক্ষকেরা মোট ৮,৯৩০ টাকা বেতন পান। কিন্তু এবার থেকে তাঁদের বেতন একধাক্কায় ৪০% বৃদ্ধি করছে সরকার। যার ফলে তাঁদের বেতন বেড়ে হবে ১২,৫০০ টাকা।

শিক্ষাদপ্তর সূত্রের খবর, এই চুক্তিভিত্তিক শিক্ষকদের ৬০% বেতন বৃদ্ধির আবেদন অর্থদপ্তরকে জানিয়েছিলেন তাঁরা। কিন্তু রাজ্যের অর্থদপ্তর সেই ৬০% সবুজ সংকেত না দিলেও ৪০% বেতন বৃদ্ধি মঞ্জুর করেছে। তবে বেতন বৃদ্ধি হলেও তা পার্শ্বশিক্ষকদের বর্ধিত বেতনের তুলনায় অনেক কম বলেই মনে করছেন অনেকে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

তবে যাই হোক না কেন এই বেতন বৃদ্ধি হওয়াতে খুশি চুক্তিভিত্তিক শিক্ষকদের একাংশ। এ প্রসঙ্গে এদিন পশ্চিমবঙ্গ চুক্তিভিত্তিক শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক কল্যান সরকার বলেন, “গত ২১ শে মে মুখ্যমন্ত্রীর সাথে এ ব্যাপারে দেখাও করেছিলাম। দীর্ঘ আটবছর পর আমাদের বেতন বাড়তে চলেছে”। তবে যেহেতু তাঁরাও উচ্চমাধ্যমিক স্তরে পড়ান তাই পার্শ্বশিক্ষকদের থেকে তাঁদের বেতন না বাড়াতে উষ্মাপ্রকাশও করেছেন তিনি।

আগামী ২ রা সেপ্টেম্বর একটি কনভেনশনও ডাকছেন তাঁরা। এদিকে পার্শ্বশিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি প্রসঙ্গে বিটিইএ-র সাধারন সম্পাদক স্বপন মন্ডল বলেন, “চুক্তিভিত্তিক শিক্ষকদের শিক্ষাগত যোগ্যতা অনুযায়ী বেতন কমই হয়েছে”। দ্রুত এই শিক্ষকদের বেতন পে স্কেলের আওতায় আনার দাবিও জানিয়েছেন তিনি। সবমিলিয়ে একদিকে বেতন বৃদ্ধিতে যেমন খুশির হাওয়া অন্যদিকে তেমনই তা সম্পূর্ণ মনের মত না হওয়ায় চাপা ক্ষোভ শিক্ষকদের মধ্যে।

Top
error: Content is protected !!