এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > সব্যসাচীকে কি ভুলতে পারছে না পুরসভা, অবাক কান্ড ঘিরে জল্পনা

সব্যসাচীকে কি ভুলতে পারছে না পুরসভা, অবাক কান্ড ঘিরে জল্পনা

তিনি যেন না থেকেও রয়েই গেছেন। গত 5 তারিখে সল্টলেকের বিদ্যুৎ ভবনের সামনে বিদ্যুৎ দপ্তরের সরকারি কর্মচারী ইউনিয়নের পক্ষ থেকে বিক্ষোভ সমাবেশে উপস্থিত হয়েছিলেন বিধাননগর পৌরসভার তৎকালীন মেয়র সব্যসাচী দত্ত। আর সেই আন্দোলনে যোগ দিয়ে কর্মচারীদের ন্যায্য দাবি নিয়ে সরব হয়ে রীতিমতো রাজ্য সরকার ও তার দল তৃণমূল কংগ্রেসকে কটাক্ষ করতে দেখা যায় সব্যসাচীবাবুকে।

যেখানে তিনি বলেন, “নিজেদের ন্যায্য দাবি নিজেরা চাইতে এসেছি। তার জন্য যতদূর যেতে হয় রাজি আছি। আর কেউ যদি মনে করেন, আমি দল বিরোধী কাজ করছি, তাতে আমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন। আমার কোনো আপত্তি নেই।”

এদিকে এই ঘটনার পরই দলের রোষানলে পড়তে হয় সেই সব্যসাচী দত্তকে। সব্যসাচীবাবু বাদে বিধাননগর পৌরসভার সমস্ত দলীয় কাউন্সিলরদের নিয়ে তৃণমূল ভবনে বৈঠক করেন রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

যেখানে ডেপুটি মেয়র তাপস চট্টোপাধ্যায়কে মেয়র পদটি দেখভালের নির্দেশ দেন তিনি। আর এরপরই দলের নির্দেশে দলীয় কাউন্সিলররা সেই সব্যসাচী দত্তের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনে। তারপর বেশ কয়েকটি ঘটনা ঘটে যায়। অবশেষে গত 18 ই জুলাই বিধাননগর পৌরসভায় সাংবাদিক বৈঠক ডেকে নিজেই মেয়র পদ থেকে ইস্তফা দেন সেই সব্যসাচী দত্ত। যে ঘটনায় রাজ্য রাজনীতিতে ব্যাপক আলোড়নের সৃষ্টি হয়।

এদিকে সব্যসাচী দত্ত যেদিন মেয়র পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে পৌরসভা ত্যাগ করছেন, ঠিক তখনই পৌরসভার অনেক কর্মচারীকে আবেগতাড়িত হতে দেখা যায়। আর ইস্তফা দেওয়ার এক সপ্তাহের বেশি সময় কেটে গেলেও এখনও সেই বিধাননগর পৌরসভার মেয়র হিসেবে সেই সব্যসাচী দত্তের নামই লেখা রয়েছে। যে ঘটনায় শুরু হয়েছে নানা গুঞ্জন।

অনেকে বলছেন, সব্যসাচীবাবু ইস্তফা দিলেও তিনি যে মেয়র পদে নেই, তা বিশ্বাস করতে পারছেন না অনেকেই। আর তাইতো তার নাম এখনও রয়েই গেছে। এদিকে সব্যসাচী দত্ত মেয়র পদে ইস্তফা দেওয়ার পরেই বিধাননগর পৌরসভার পরবর্তী মেয়র কে হবে, তা নিয়ে বেশ কয়েকটি নাম ভেসে আসতে শুরু করেছে‌।

যার মধ্যে ডেপুটি মেয়র তাপস চট্টোপাধ্যায়, দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু এবং বিধাননগর পৌরসভার চেয়ারম্যান কৃষ্ণা চক্রবর্তী সহ বেশ কয়েকজন কাউন্সিলরের নাম সামনের সারিতে উঠে আসছে। তবে কে মেয়র হবে তা সময় বলবে। কিন্তু সব্যসাচী দত্ত ইস্তফা দেওয়ার পরও যেভাবে তার নামের ফলক এখনও সরেনি বিধাননগর পৌরসভা থেকে, তাতে সব্যসাচীবাবুর সঙ্গে যে বিধাননগর পৌরসভা একাত্ম হয়ে গিয়েছে, তা এই ঘটনা থেকেই স্পষ্ট বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!