এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > নির্বাচনী জনসভার মঞ্চেই দলনেত্রীর মুখোমুখি হলেন সব্যসাচী- শুনতে হলো গো ব্যাক – জল্পনা তুঙ্গে

নির্বাচনী জনসভার মঞ্চেই দলনেত্রীর মুখোমুখি হলেন সব্যসাচী- শুনতে হলো গো ব্যাক – জল্পনা তুঙ্গে

বেশ কিছুদিন আগে হঠাৎই রাত্রিবেলা বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচী দত্তর বাড়িতে হাজির হন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। আর তৃনমূল নেতার বাড়িতে মুকুল রায়ের হাজির হওয়া নিয়ে এই দুইজনের মধ্যে কি কথোপকথন হলো তা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে তুমুল জল্পনা ছড়ায়। তবে বাইরে বেরিয়ে এসে এই গোটা ব্যাপারটিকে সৌজন্য সাক্ষাৎ বলে অভিহিত করে তিনি সব্যসাচির বাড়িতে লুচি আলুর দম খেতে এসেছিলেন বলে জানিয়ে দেন মুকুল রায়।

কিন্তু সত্যিই কি তাই? নাকি এর পেছনে অন্য কোনো কারণ রয়েছে? তাহলে কি সব্যসাচি এবার জার্সি বদল করতে চলেছেন তা নিয়ে যখন রাজ্য রাজনীতিতে তুমুল জল্পনা তৈরি হয়েছিল, ঠিক তখনই সাংবাদিক বৈঠক করে তিনি তৃনমূলেই থাকছেন বলে জানিয়ে দেন সেই সব্যসাচী দত্ত। তবে এই লুচি আলুর দম বিতর্কের পর সেইভাবে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে মুখোমুখি হতে দেখা যায়নি সব্যসাচী দত্তকে। কিন্তু এবার রাজারহাট নিউটাউনের নির্বাচনী সভায় সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখোমুখি হলেন বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচী দত্ত।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, এদিন নেত্রী পৌঁছনোর প্রায় মিনিট পাঁচেক আগে সব্যসাচী দত্ত সেই মঞ্চে উঠলে দলীয় কর্মীদের একাংশ তাকে দেখে গো ব্যাক করে স্লোগান দিতে থাকে। যা নিয়ে তীব্র বিতর্ক ছড়ায়। তবে মঞ্চে নেত্রী পৌঁছানোর পর একান্তে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথাও বলতে দেখা যায় সব্যসাচী দত্তকে।

অন্যদিকে এদিনের সভায় থেকে বিধাননগরের বিধায়ক সুজিত বসুর ভূয়সী প্রশংসা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।অন্যদিকে বিধাননগরের কাউন্সিলরদের প্রতি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরামর্শ, পুরনিগমের কাজে ফাঁকি দেওয়া যাবে না। রাস্তাঘাট আরও ভালো করতে হবে। জমিহারাদের কাজ দেওয়ার নির্দেশও দেন মুখ্যমন্ত্রী।

কিন্তু সমস্ত নেতা-নেত্রীরা যখন নেত্রী পৌঁছনোর অনেক আগেই মঞ্চে হাজির, সেখানে তিনি কেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আসার 5 মিনিট আগে মঞ্চে আসলেন! এদিন এই প্রশ্নের উত্তরে সব্যসাচী দত্ত বলেন, “আগে গেলে বাঘে খায়।” সব মিলিয়ে বাড়ে লুচি আলুর দম বিতর্কের পরে প্রথম নির্বাচনী জনসভার মঞ্চে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখোমুখি হলেন বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচী দত্ত।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!