এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > পদাধিকার হতে চাই সবাই, পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন নিয়ে চূড়ান্ত সমস্যায় শাসকদল

পদাধিকার হতে চাই সবাই, পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন নিয়ে চূড়ান্ত সমস্যায় শাসকদল

পঞ্চায়েত নিয়ে যেন সমস্যা কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না রাজ্যের শাসকদল তৃনমূল কংগ্রেসের। সব আসনে জিতলেও ভোটের আগে বিভিন্ন জেলায় টিকিট বন্টন নিয়ে দলের সমর্থকদের বিবাদ, পরে তা মিটলেও এবার বোর্ড গঠন ঘিরে তীব্র চাপানউতর চলছে দলেরই অন্দরে। জানা গেছে, পদাধিকারী হতে চেয়ে মালদা জেলার অনেক পঞ্চায়েত সদস্যরা নিজেদের কয়েকজনকে নিয়ে শিবির তৈরি করে ফেলেছেন।

 

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

এমনকী দলে ভারী থাকার জন্য অন্য দলেরও জয়ী সদস্যদের এখানে রাখা হচ্ছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এবার মালদা জেলাতে পঞ্চায়েতে তৃনমূল ভালো ফল করার পরই জেলার পর্যবেক্ষক তথা মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী এসে দল না ভাঙানোর ব্যাপারে কর্মীদের সতর্ক করেছিলেন। কিন্তু পদ যে বড় বালাই। তাই তো এখন থেকেই পদের আশায় নিজেদের পৃথক পৃথক শিবির তৈরি করে ফেলেছেন তৃনমূলের কর্মীরা।

দলীয় সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই জেলার হরিশচন্দ্রপুর, বৈষ্নবনগর, বামনগোলা সহ একাধিক পঞ্চায়েতে শাসকদলের শিবির তৈরি হয়েছে। জানা গেছে, এনিয়ে বুধবার মালদার মানিকচকের গোপালপুরে দলীয় সমর্থকদের মধ্যে একটি সংঘর্ষেরও সৃষ্টি হয়। সূত্রের খবর, এখানে একটি শিবির তৈরি করা হলেও সেখানে থাকা কয়েকজন তৃনমূল সদস্য শিবির বদল করলে দলেরই তরফ থেকে সে শিবিরের আয়োজকদের মধ্যে থেকে একদল কর্মী তাঁদের বাড়ি ভাঙচুর করে বলে অভিযোগ। তবে জেলার সর্বত্র এহেন শিবির হচ্ছে এই আভিযোগ মিনতে নারাজ মালদহ জেলা তৃনমূলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বাবলা সরকার। এদিন তিনি বলেন, “মানিকচকে একটি ঘটনা ঘটেছে শুনেছি। তবে তা বিরোধীদের উস্কানিতেই হয়েছে। সবখানে নয়, কয়েকটি জায়গায় শিবির তৈরি হয়েছে। তৃনমূল শৃঙ্খলাপরায়ন দল। এখানে এগুলো বরদাস্ত করা হবে না।” রাজনৈতিক মহলের মতে, আগষ্ট মাসেই পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন। আর তার আগেই দলীয় কর্মী সমর্থকরা যেভাবে নিজেদের মধ্যে শিবির করে দ্বন্দ্বে লিপ্ত হয়েছে তাতে শাসকদলের কপালে ভাঁজ পড়াটাই স্বাভাবিক। এখন দেখার তৃনমূল এটাকে মোকাবিলা করে কি ভাবে?

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!