এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > শাসকদলের বিরুদ্ধে ক্ষোভকে কাজে লাগিয়ে আলিপুরদুয়ার আসনকে পাখির চোখ করছে বামেরাও

শাসকদলের বিরুদ্ধে ক্ষোভকে কাজে লাগিয়ে আলিপুরদুয়ার আসনকে পাখির চোখ করছে বামেরাও

একদা উত্তরবঙ্গের প্রায় সবকটি আসনেই বামেদের দাপট অব্যাহত ছিল। কিন্তু 2011 সালে রাজ্যে পালাবদলের পর ক্ষমতা থেকে চলে যাওয়ার পর থেকেই সেই উত্তরবঙ্গে বামেদের রক্তক্ষরণ দেখা দিতে শুরু করে। রাজনৈতিক ধ্বস নামতে শুরু করে আলিমুদ্দিন স্ট্রিটের বড় বড় পাথরগুলি। কিন্তু এবার আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে হালে পানি পেতে উত্তরবঙ্গের লোকসভা আসনটিকে পাখির চোখ করতে চলেছে বামেরা।

সূত্রের খবর, প্রথমে নানা জল্পনা-কল্পনা চললেও শুক্রবার এই আলিপুরদুয়ার লোকসভা কেন্দ্রে বামেদের প্রার্থী হিসেবে আরএসপির মিলি তিরকির নাম ঘোষণা করেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু। প্রসঙ্গত, গত 2014 সালের লোকসভা নির্বাচনে আলিপুরদুয়ার কেন্দ্রে প্রার্থী হিসেবে মনোহর তিরকি তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী তৃণমূল প্রার্থী দশরথ তিরকির কাছে 21 হাজার 397 ভোটে পরাজিত হন।

আর এরপরই জেলায় বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকে রক্তক্ষরণ হতে শুরু করে বামেদের। জেলার 66 টি পঞ্চায়েতের মধ্যে একটি এবং 188 টি পঞ্চায়েত সমিতির মধ্যে একটি আসন পায় বামপন্থীরা। তবে জেলা পরিষদের 18 টি আসনের মধ্যে তাদের শূন্য হাতেই ফিরতে হয়।

কিন্তু পঞ্চায়েতে তারা হারলেও এবারের লোকসভা নির্বাচনে আলিপুরদুয়ার কেন্দ্রে সেই মনোহর তিরকির মেয়ে মিলি তিরকিকে দাঁড় করিয়ে সেই কেন্দ্র দখল করতে বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনে যেভাবে শাসক দল এই এলাকায় সন্ত্রাস চালিয়েছে তার কথা তুলে ধরে জোর প্রচার চালাতে চাইছে বামেরা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, প্রার্থী ঘোষণা হওয়ার সাথে সাথেই যেদিন জেলা বামফ্রন্টের বৈঠক আয়োজিত হয়। আর সেখানেই সেই মিলি তিরকিকে জেলা নেতৃত্বের সকলের সাথে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয়। আর এরপরই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে এই আলিপুরদুয়ার কেন্দ্রটি নিজেদের দখলে রাখতে শাসকদলের বিরুদ্ধে প্রচার করে কিভাবে মানুষের কাছে যেতে হবে তা নিয়ে সকলকে অবহিত করেন সিপিএমের জেলা সম্পাদক মৃণাল কান্তি রায়।

তিনি বলেন, “সকলেই জানেন যে, পঞ্চায়েতে শাসকদলের লাগামছাড়া সন্ত্রাসের জন্য মানুষ ভোট দিতে পারেনি। পঞ্চায়েত ভোট না দেওয়ার জন্য অনেক মানুষের মনে ক্ষোভ রয়েছে। আমরা এবার সেই ক্ষোভকে সামনে রেখেই প্রচারে শামিল হব।” সব মিলিয়ে শাসকদলের বিরুদ্ধে ক্ষোভকে কাজে লাগিয়ে আলিপুরদুয়ার আসনে বামেরা প্রচারে নামলেও তারা কতটা সেখানে সাফল্য পাবে তা দেখবার জন্য তাকিয়ে থাকতেই হবে আগামী 23 মের দিকে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!