এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > মেয়রের বিবাহবিচ্ছেদের খবর সামনে আসতেই কারন নিয়ে তীব্র জল্পনা শুরু

মেয়রের বিবাহবিচ্ছেদের খবর সামনে আসতেই কারন নিয়ে তীব্র জল্পনা শুরু

এক সার্ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের বাংলা সংস্করণে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী এবার বিবাহবিচ্ছেদের পথে যেতে চলেছেন কলকাতার মহানাগরিক তথা মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়। আর এই খবর সামনে আসতেই রীতিমত শোরগোল পরে গেছে রাজ্য-রাজীনীতিতে। কেননা নারদ মামলায় শোভন বাবুর নাম জড়ানোর পর তাঁর স্ত্রী রত্নাদেবীর নামও জড়িয়ে যায়। তিনি নিউ মার্কেট থানায় ২০১৬ সালের জুন মাসে নারদ কর্তা ম্যাথু স্যামুয়েলের নামে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ ছিল যে ম্যাথু শোভন বাবুর নাম কলঙ্কিত করার চেষ্টা করছেন। আর এই নিয়ে তদন্তে নেমেছিল কলকাতা পুলিশ। এরপর যখন সিবিআই এবং ইডি শোভন বাবুকে ডেকে পাঠায় সেখানে জেরায় মেয়র জানিয়ে ছিলেন যে তাঁর আয়-ব্যায় সংক্রান্ত যাবতীয় হিসেবপত্তর দেখভাল করেন তাঁর স্ত্রী রত্নাদেবী।
ফলে তাঁর স্ত্রীকেও ডেকে পাঠায় সিবিআই এবং ইডি, কিন্তু অসুস্থতার কারণে বিদেশে থাকায় তিনি যেতে পারেননি। এখন কিছুটা সুষ্ঠ হয়ে দেশে ফেরার পর আবার তাঁকে ডেকে পাঠিয়েছে দুই তদন্তকারী সংস্থা আর তিনি এবার যাবেন ও সব কিছু বলবেন বলে জানিয়েছিলেন। তাই এখন রাজনৈতিক মহলে প্রশ্ন উঠছে মেয়র কি স্ত্রীর ঘাড়ে সব দোষ চাপিয়ে বাঁচতেই এই মামলা করেছেন? আবার অনেকে প্রশ্ন তুলেছেন যে রত্নাদেবী কিছুদিন আগেই জানিয়েছিলেন ‘সব সত্যি’ বলবেন আর তাই কি মেয়র এই পথ বেছেছেন। যাই হোক মেয়রের সঠিক সময়ের উত্তরের দিকে তাকিয়ে সমস্ত রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!