এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > আগামী বুধবারেই শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিদায় সম্পূর্ণ হতে চলেছে শাসকদলে?

আগামী বুধবারেই শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিদায় সম্পূর্ণ হতে চলেছে শাসকদলে?

রাজ্য রাজনীতিতে এই মুহূর্তে সবথেকে বড় ঘটনাবহুল নাম শোভন চট্টোপাধ্যায়। একদা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলে শোভনবাবুর নামে রোজই নতুন-নতুন মোড় ঘুরিয়ে দেওয়া তথ্য উঠে আসছে জনপ্রিয় মেগা সিরিয়ালের মতোই। তৃণমূলের কোর কমিটির বৈঠক এড়ানো থেকে, লালবাজারে পুলিশের শীর্ষকর্তার সঙ্গে গোপন বৈঠকে অংশগ্রহণ করা, জল্পনা বাড়াচ্ছেন কলকাতার মহানাগরিক তথা রাজ্যের গুরুত্ত্বপূর্ন মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায় নিজেই। এরই মধ্যে কলকাতার এক নামী ওয়েব পোর্টাল বিস্ফোরকভাবে জানিয়েছে আগামী বুধবারেই মেয়র কাণ্ডে সমস্ত জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে যবনিকা পড়তে চলেছে।

ওই পোর্টালে প্রকাশিত খবরানুযায়ী, আগামী বুধবার কলকাতা পুরসভার বাজেট অধিবেশনে জবাবী ভাষণ দেবেন শোভনবাবু। আর তারপরেই তিনি মন্ত্রীত্ত্ব থেকে ইস্তফা দেবেন, এমনকি তাঁর পদত্যাগপত্রও নাকি লেখা হয়ে গেছে। তবে কলকাতার মহানাগরিক হিসাবে কবে তিনি পদত্যাগ করছেন তা নাকি স্থির করবেন সেই বুধবারেই। অন্যদিকে ওই পোর্টালে তৃণমূলের অন্দরের খবর বলে দাবি করা হয়েছে যে, দিদির সংসারে আর কাননের (শোভনবাবুর ডাকনাম) জায়গা নেই, দলও তাঁকে সেটা ভাল করে বুঝিয়ে দিয়েছে। এমনকি মেয়র হিসেবে তিনি নিজে ইস্তফা না দিলে দল তাঁকে সরিয়ে দিতে পারে এই বার্তাও তাঁর কাছে নাকি পৌঁছে গেছে। সবমিলিয়ে শোভন চট্টোপাধ্যায়কে ঘিরে বঙ্গ রাজনীতি এখন জমজমাট। যদিও এই খবরের সত্যতা বা সূত্র সম্পর্কে ওই ওয়েব পোর্টালে কিছু লেখা নেই, প্রিয়বন্ধু বাংলার তরফেও এই খবরের সত্যতা যাচাই করে দেখা সম্ভব হয় নি। এই প্রবন্ধ সম্পূর্ণরূপে ওই পোর্টালে প্রকাশিত খবরের পরিপ্রেক্ষিতে করা, কোনোভাবেই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নয় বা কোনো ব্যক্তি বা দলের সম্মানহানির উদ্দেশ্যে রচিত নয়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!