এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > আরএসএসের সভায় ডাক তৃণমূল ঘনিষ্ঠর, জোর জল্পনা শুরু রাজনৈতিক মহলে

আরএসএসের সভায় ডাক তৃণমূল ঘনিষ্ঠর, জোর জল্পনা শুরু রাজনৈতিক মহলে

Priyo Bandhu Media


লোকসভা নির্বাচনের পরবর্তী সময়ে উত্তরবঙ্গের তৃণমূলের ভরাডুবি প্রকট হতে শুরু করে। সেখানকার 7 টি আসন বিজেপি নিজেদের দখলে নিয়ে নেওয়ায় শিলিগুড়ি থেকে দিনাজপুর পর্যন্ত গেরুয়া শিবিরের দাপট লক্ষ্য করা যায়। ইতিমধ্যেই অনেক তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা কর্মী বিজেপিতে নাম লিখিয়েছেন। আর এবার শিলিগুড়ির সূর্যসেন কলোনির একটি স্কুলে আরএসএসের পক্ষ থেকে একটি আলোচনা সভার আয়োজনে তৃণমূল ঘনিষ্ঠ অধ্যাপকের উপস্থিতি প্রবল জল্পনা বাড়িয়ে দিল।

সূত্রের খবর, আগামী রবিবার জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থার একাল এবং সেকাল শীর্ষক একটি আলোচনা সভার আয়োজন করেছে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ পরিচালিত জাতীয়তাবাদী অধ্যাপক এবং গবেষক সঙ্ঘ। যে আলোচনাটি অনুষ্ঠিত হবে শিলিগুড়ি সূর্যসেন কলোনির একটি স্কুলে যেখানে। উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে আরএসএসের কেন্দ্রীয় কমিটির সহকারি কার্যবাহী ভি ভাগাইয়া, বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার জলপাইগুড়ির সাংসদ জয়ন্ত রায় এবং দার্জিলিংয়ের সাংসদ রাজু বিস্তার।

 

তবে আশ্চর্যজনক ভাবে এই আলোচনার প্রধান বক্তা হিসেবে রাখা হয়েছে পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য এবং উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাণিজ্য বিভাগের শিক্ষক ইন্দ্রজিৎ রায়কে। আর আরএসএসের আলোচনা সভায় ইন্দ্রজিৎবাবুর উপস্থিতি এখন প্রবল গুঞ্জন বাড়িয়ে দিচ্ছে রাজনৈতিক মহলে।

কেননা ইন্দ্রজিৎবাবু তৃণমূলের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত। ফলে তিনি কেন সঙ্ঘ পরিবারের এই অনুষ্ঠানে যাচ্ছেন, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন অনেকে। তাহলে কি তিনি এবার বিজেপির প্রতি মনোযোগী হতে চলেছেন! আর তাই কি সংঘের এই আলোচনা সভায় তিনি উপস্থিত হচ্ছেন!


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে ইন্দ্রজিৎ রায় বলেন, “আরএসএস বা সিপিএম জানিনা। আগেও বিভিন্ন সংগঠনের সভায় শিক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে ভাষণ দিয়েছি। এবারেও দেব। অযথাই এই ঘটনায় রাজনীতি যুক্ত করা হচ্ছে।” তবে এই ব্যাপারে তারা যে কিছুটা হলেও অস্বস্তিতে, এদিন তা ঘাসফুল শিবিরের কথাতেই আভাস পাওয়া গেছে।

এদিন এই প্রসঙ্গে তৃণমূল পরিচালিত কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের সংগঠন ওয়েবকুপার স্থানীয় নেতৃত্বকে প্রশ্ন করা হলে দার্জিলিং জেলা কমিটির এক নেতা বলেন, “সরাসরি রাজ্য কমিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগঠন দেখভাল করে। তাই এই বিষয়ে আমরা কিছু বলতে পারব না।”

তবে এই ব্যাপারে রাজ্য কমিটির এক নেতা বলেন, “আরএসএস বারবার পাঠ্যসূচিতে বদলের কথা বলছে। জোর করে ইতিহাস বদর কথা বলছে। তাদের সভায় যারা বক্তব্য রাখতে যাবেন, তাদের ভাবমূর্তি নিয়ে প্রশ্ন ওঠাই স্বাভাবিক।” তবে শেষ পর্যন্ত ইন্দ্রজিৎবাবু আরএসএসের এই সভায় উপস্থিত থাকেন কিনা এবং যদি উপস্থিত থাকেন, তাহলে তার পরিপ্রেক্ষিতে তৃণমূল কোনো পদক্ষেপ নেয় কিনা, এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!