এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > নিম্নমানের রাস্তার কাজ হচ্ছে অভিযোগে প্রধানমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনায় রাস্তা তৈরির কাজ বন্ধ করলো গ্রামবাসী

নিম্নমানের রাস্তার কাজ হচ্ছে অভিযোগে প্রধানমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনায় রাস্তা তৈরির কাজ বন্ধ করলো গ্রামবাসী

নিম্নমানের কাজের অভিযোগে প্রধানমন্ত্রী গ্রান সড়ক যোজনার রাস্তার তৈরির কাজ বন্ধ হয়ে গেলে গ্রামবাসীদের অভিযোগে। ঘটনাটি কোচবিহারের মাথাভাঙা-১ ব্লকোর বৈরাগীহাট পঞ্চায়েতের জমিরডাঙা এলাকার। এই ঘটনায় বিজেপি আবার এলাকার তৃণমূল কংগ্রেস নেতাদের বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগে সরব হয়েছে। উক্ত অভিযোগকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়।

তাছাড়া কেন্দ্রীয় প্রকল্পের কাজের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠায় লোকসভা ভোটের মুখে প্রধানমন্ত্রীর ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত হল তা বলাবাহুল্য। কেন্দ্রীয় জনস্বার্থ মুখী প্রকল্পগুলোকেই প্রচারের মাধ্যম করে আমজনতার বিশ্বাস অর্জনের পথে নেমেছিলেন মোদী। সেখানে প্রকল্পের কাজেই গলদের অভিযোগ সামনে আসায় গেরুয়াশিবির অস্বস্তিতে পড়ল তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে এই প্রেক্ষিতে বিজেপি আবার উল্টে রাজ্যের তৃণমূল সরকারকে এ ব্যাপারে কাঠগড়ায় তুলে নিজেদের দায় অস্বীকার করল।

স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশের অভিযোগ,প্রধানমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনার আওতায় গত আড়াই মাস ধরে নয়ারহাট-খাগরিবাড়ি কালভার্ট থেকে জমিরডাঙা-বটতলা পর্যন্ত তিন কিলোমিটার দীর্ঘ রাস্তা তৈরির কাজ চলছে। দেড় কোটি টাকা বরাদ্দের এই প্রকল্পে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করা হচ্ছে বলেই অভিযোগ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে বহুবার সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার সংস্থাকে জানানো হলেও তিনি বিষয়টা নিয়ে তেমন গুরুত্ব না দেওয়ায় মেজাজ বিগড়ে যায় গ্রামবাসীদের।

গতকাল বিক্ষুব্ধ জনতা রাস্তা তৈরির কাজটাই বন্ধ করে দেন। এই পরিস্থিতিতে স্থানীয়দের শান্ত করতে ঘটনাস্থলে গিয়ে গ্রামবাসীদের সঙ্গে কথা বলেন স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সুলতান মিয়া ও অমর রায়। দ্রুত সমস্যাটি মিটিয়ে নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন তাঁরা। পঞ্চায়েত প্রধান শম্পা রায়চৌধুরি বলেন, “বিষয়টি শুনেছি। দ্রুত সমস্যা মিটিয়ে রাস্তার কাজ ফের শুরু হবে।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

ওদিকে গোটা ঘটনার দায় তৃণমূলের ঘাড়ে চাপালেন কোচবিহার জেলা BJP নেতা দধিরাম রায়। তাঁর বক্তব্য,কেন্দ্র থেকে প্রকল্পটির জন্যে টাকা পাঠানো হলেও সেই টাকা সঠিক খাতে ব্যবহার করছে না প্রশাসন। বেশিরভাগ টাকাই আত্মসাৎ করে রাস্তা তৈরিতে নিম্নমানের দ্রব্য ব্যবহার করছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতারা। ঠিকাদারদের কাছ থেকেও ভুরি ভুরি টাকা তোলা নিচ্ছেন শাসকদলের নেতারা। আর এটা জানতে বাকি নেই স্থানীয় বাসিন্দাদের। এর জবাব তাঁরা দেবেই,মানুষ ছেড়ে কথা বলবে না বলেই জানালেন বিজেপি নেতা।

তবে বিজেপি যতোই অভিযোগ করুক না কেন আসলে এই দুর্নীতিমূলক কর্মকাণ্ডে আদৌ তৃণমূল জড়িত আছে কিনা সে সম্পর্কে সঠিক তথ্য প্রমাণ প্রকাশ্যে আসেনি। তবে উক্ত ঘটনার জেরে তৃণমূল-বিজেপি সংঘাত আরো একবার সামনে এল। এই পরিস্থিতিতে এলাকায় প্রধানমন্ত্রী সড়ক যোজনার কাজ কবে শুরু হবে বা আদৌ এই মুহূর্তে শুরু হবে কিনা তা নিয়ে চূড়ান্ত কৌতূহল রয়েছে স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!