এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > সিভিক ভলান্টিয়ার সেজে দুর্নীতি ও তোলাবাজির অভিযোগ যুব তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে

সিভিক ভলান্টিয়ার সেজে দুর্নীতি ও তোলাবাজির অভিযোগ যুব তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে

সম্প্রতি দলের কোর কমিটির বৈঠকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলীয় নেতাদের নাম ধরে ধরে দুর্নীতি ও গোষ্ঠদ্বন্দ্ব থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেন। তিনি স্পষ্ট করে দেন তৃণমূল যুব কংগ্রেস নেতাদের মেনে চলতে হবে তৃণমূল জেলা নেতাদের নির্দেশ। কিন্তু তাঁর সেই কঠোর নির্দেশের পরেও যে তৃণমূল যুব নেতাদের হুঁশ ফেরেনি আবার প্রমাণিত হল ক্যানিং থানার হেরভাঙায়। সিভিক ভলান্টিয়ার সেজে দুর্নীতি ও তোলাবাজির অভিযোগ উঠল যুব তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে। স্থানীয় সূত্রের খবর, মোরসেলেম মোল্লা বলে এক স্থানীয় ব্যবসায়ী ব্যবসার কাজে গভীর রাত্রে তাঁর যন্ত্রচালিত ভ্যান নিয়ে মগরাহাট যাচ্ছিলেন। হেরভাঙার কাছে এসে তেল ফুরিয়ে গেলে তিনি রাস্তার পাশে তেল ভরছিলেন, এইসময় হঠাৎ করে দুজন এসে তাঁকে বেধড়ক মারধর শুরু করে তাঁর কাছে থাকা প্রায় ১০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এখানেই শেষ নয় এরপর মোরসেলেম মোল্লা ও তাঁর দুই সঙ্গীকে নিয়ে ওই দুজন স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়িতে যায়।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সেখানে ওই দুজন নিজেদের নাম জানায় ফারাক মণ্ডল ও মিজানুর রহমান এবং ফারাক মণ্ডল নিজেকে সিভিক ভলান্টিয়ার বলে পরিচয় দেয়। তার সাথেই জানায় মোরসেলেম মোল্লা ও তাঁর সঙ্গীরা আসলে গরুচোর তাই ধরে ফাঁড়িতে নিয়ে এসেছেন। স্বাভাবিকভাবেই ‘সিভিক ভলান্টিয়ার-এর’ অভিযোগের ভিত্তিতে ফাঁড়ির পুলিশ মোরসেলেম মোল্লা ও তাঁর সঙ্গীদের ক্যানিং থানায় নিয়ে যায়। সেখানকার পুলিশ তদন্ত করে দেখে মোরসেলেম মোল্লাদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগই নেই, তাই তাঁদের পরের দিন বিকেলেই ছেড়ে দেওয়া হয়। ঘটনার কথা এলাকায় ফায়ার এসে মোরসেলেম মোল্লা জানাতেই স্থানীয়রা খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন যে ফারাক মন্ডল আদতে সিভিক ভলান্টিয়ারই নন। তিনি আসলে বধুকুলার তৃণমূল যুব কংগ্রেস নেতা, এমনকি এলাকায় আরো বেশ কিছু তোলাবাজির সঙ্গেও তাঁর নাম জড়িয়েছে। এই তথ্য হাতে পেয়েই ব্যবসায়ী মোরসেলেম মোল্লা পাল্টা তৃণমূল যুব নেতা ফারাক মন্ডলের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!