এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > শিশু ধর্ষণে চরম শাস্তির পথই বেছে নিতে চলেছে দেশ, মাত্র দুমাসের মধ্যেই বিল পাশ কলকাতায়

শিশু ধর্ষণে চরম শাস্তির পথই বেছে নিতে চলেছে দেশ, মাত্র দুমাসের মধ্যেই বিল পাশ কলকাতায়

সোমবার লোকসভায় পাশ হয়ে গেলো এই সময়ের নিরিখে দেশের একটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত। জানা যাচ্ছে এবার থেকে ১২ বছরের কমবয়সী নাবালিকা ধর্ষণে মৃত্যুদণ্ডই হবে  দোষীদের সর্বোচ্চ সাজা। প্রসঙ্গত, সম্প্রতি কাঠুয়ায় ৮ বছরের শিশুকে গণধর্ষণের ঘটনার পরই সমগ্র দেশ উত্তাল হয়ে ওঠে। তারপরেই কেন্দ্র এই বিল প্রস্তুতের কাজে সক্রিয় হয়ে ওঠে। এদিন লোকসভায় বিল পাশ করাতে ২ ঘণ্টা সময় লেগেছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

এই প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী কিরেণ রিজিজু জানালেন,  এই আইন নাবালিকা মেয়েদের সুরক্ষায় বিশেষভাবে সহায়তা করবে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর মতে নাবালিকা ধর্ষনের মামলায় আইন কঠোরতম হলে তবেই মানুষের অপরাধ প্রবণতা কমানো সম্ভব। এছাড়াও ১২-১৬ বছর মেয়েদের ধর্ষণের সাজার মেয়াদ যাবজ্জীবন কারাবাস করা হয়েছে। অর্থাৎ মৃত্যুর আগের মুহূর্ত অবধি অপরাধীকে কারাবাস করতে হবে।

এই মামলার গুলির ট্রায়াল যাতে খুব শীঘ্র সম্ভব হয় সেদিকে ও কেন্দ্র বিশেষ ব্যবস্থা নিচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।  কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরেণ রিজিজু দাবি করলেন যে কেন্দ্র চাইছে দেশের সব মহিলারা যাতে নির্ভয়ে চলাফেরা করতে পারে। তার জন্যেই সব রকম আইনী সুযোগ সুবিধা প্রচলনের ক্ষেত্রে বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। অন্যদিকে এই প্রসঙ্গে সাংসদ আসাউদ্দিন ওয়েইসির মত, আইন ধর্ষণ বন্ধ করতে পারবে না। তবে পুরুষের ভাবনা বদল হলে ধর্ষণ কমে আসবে। মৃত্যুদ্বন্দ্বই কেবলমাত্র ধর্ষণ বন্ধ করে দিতে পারে এই ভাবনার সাথে তিনি সহমত নয় বলেই জানালেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!