এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > রাজ্য-রাজনীতির দুই হেভিওয়েটের ‘সঙ্ঘ-যোগ’ খুঁজে পেয়ে বিতর্ক বাড়ালেন দাপুটে তৃণমূল সাংসদ!

রাজ্য-রাজনীতির দুই হেভিওয়েটের ‘সঙ্ঘ-যোগ’ খুঁজে পেয়ে বিতর্ক বাড়ালেন দাপুটে তৃণমূল সাংসদ!

রাজ্য রাজনীতিতে দুই যুযুধান শিবির তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে দুর্গাপুজো কে ঘিরে বিতর্ক মাথা চাড়া দিল। লোকসভা ভোটের আগে থেকেই বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে বিতর্কের সূত্রপাত হয়েছে। সম্প্রতি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে ঘেরাও করা নিয়েও বিজেপি ও তৃণমূল শিবিরে চরম বাদানুবাদ লক্ষ্য করা যায়। এই ঘটনায় রাজ্যপাল জড়িয়ে যাওয়ায় তাঁকেও এই বাদানুবাদের শিকার হতে হয়েছে। এদিন আবারও দুর্গাপুজোকে কেন্দ্র করে রাজ্যপালের আসা নিয়ে তৃণমূল নেতা কল্যাণ ব্যানার্জি অভিযোগের আঙুল তুললেন কংগ্রেসের দিকে।

এদিন শ্রীরামপুরে তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেছেন, কংগ্রেসের আব্দুল মান্নান এবং লোকসভার কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরীর সঙ্গে আরএসএসের যোগ আছে। এদিন রাজ্যপাল আব্দুল মান্নানের পুজোয় শ্রীরামপুরের চাত্রার গড়গড়ি ঘাটে প্রতিমা দর্শন করতে যান এবং তারপরেই অভিযোগের আঙুল তুলেছেন তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

শ্রীরামপুরের চাতরার গড়গড়ি ঘাটে রাজ্যপাল দুর্গাপুজো দেখতে গিয়েছিলেন কংগ্রেস নেতা আব্দুল মান্নানের আমন্ত্রণে। পরিষ্কার করে রাজ্যপাল সেখান থেকে বলেন, রাজ্যকে সর্বোচ্চ স্তরে পৌঁছতে গেলে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। তাই কেউ কারোর বিরুদ্ধেই লক্ষ্মণরেখা অতিক্রম করবেন না।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

রাজ্যপালের এই বক্তব্যের পরই কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় কটাক্ষ করে বলেন, রাজ্যপাল আগে যেহেতু বিজেপি করতেন, তাই তিনি যেন বিজেপি নেতা ও কর্মীদের এই লক্ষণরেখা নিয়ে বোঝান। অন্যদিকে, তিনি আব্দুল মান্নান কেউ কটাক্ষ করে বলেন আব্দুল মান্নানকেও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি। তিনি বলেন, পুজোর সময় রাজ্যপালকে নিয়ে এসেছেন, তা খুবই ভালো। এবং এরপরই তিনি আব্দুল মান্নান এবং অধীর চৌধুরীর সঙ্গে আরএসএসের যোগ নিয়ে অভিযোগ জানান।

তবে, শুধুমাত্র কল্যাণ ব্যানার্জি নয়, লোকসভা ভোটের আগে মুর্শিদাবাদে প্রচারে গিয়ে স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কংগ্রেসের সঙ্গে আরএসএস যোগের অভিযোগ করেছিলেন। অধীর চৌধুরীর বহরমপুর আসনের বেলডাঙা এবং বহরমপুরের ও জঙ্গিপুরের লালগোলায় প্রচারে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী এই অভিযোগ তুলেছিলেন।

ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এখনো পর্যন্ত বিজেপি শিবিরের পক্ষ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। তবে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের দাবি, সামান্য দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে এহেন অভিযোগ না করলেই ভালো হয়। এতে উৎসবের আলো ম্লান হয়। রাজ্যপাল এরাজ্যের মহানাগরিক। তাঁকে সম্মান দেওয়াটা আবশ্যিক কার্যের মধ্যেই পড়ে। ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বিজেপি শিবিরের দিকে লক্ষ্য রাখছে সবাই।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!