এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > রাজীব কুমারের জন্য স্বস্তি, অপেক্ষা আর চাপ বাড়ছে সিবিআইয়ের

রাজীব কুমারের জন্য স্বস্তি, অপেক্ষা আর চাপ বাড়ছে সিবিআইয়ের

কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে নিয়ে কম জলঘোলা হয়নি। আর এবার সেই রাজীব কুমারের আগামী 22 শে জুলাই পর্যন্ত রক্ষাকবচ বহাল রাখা হল। সূত্রের খবর, গত মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টের পক্ষ থেকে কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনারের গ্রেফতারির উপর এই অন্তর্বর্তীকালীন স্থগিতাদেশের মেয়াদ বৃদ্ধির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সারদা কাণ্ডে সিবিআইয়ের দেওয়া সমনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে এই রাজীব কুমার হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন। আর এর পরিপ্রেক্ষিতেই 22 শে জুলাই পর্যন্ত তার গ্রেপ্তারের ওপর এদিন স্থগিতাদেশ জারি করল আদালত।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

জানা যায়, গত মে মাসেই হাইকোর্টের অবকাশকালীন বেঞ্চ কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনারের আইনজীবীকে এই মামলা নথিভুক্ত করার অনুমোদন দিলে সেই মামলার শুনানিতে গত একমাস তার গ্রেপ্তারির উপর আদালতের পক্ষ থেকে স্থগিতাদেশ জারি করা হয়। যেখানে কলকাতা ছেড়ে না যাওয়া, সিবিআইয়ের মুখোমুখি হওয়া এবং সিবিআইয়ের কাছে তার পাসপোর্ট জমা রাখতেও রাজীব কুমারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। যার জেরে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআইয়ের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই রাজীব কুমারকে শিলংয়ে 5 দিনব্যাপী প্রায় 39 ঘন্টা ধরে জেরা করা হয়েছিল। তবে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে তার গ্রেপ্তারের ওপর তখন স্থগিতাদেশ থাকলেও পরে সেই স্থগিতাদেশ উঠে যায়।

এরপরই আইনি রক্ষাকবচের মেয়াদ বাড়ানোর জন্য একাধিকবার শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হন। তবে রাজীব কুমার বরাবরই শীর্ষ আদালতের পক্ষ থেকে তার আবেদন খারিজ করে দেওয়া হলে নিম্ন আদালতে যান। আর এর ফলেই এবার রাজীব কুমারের রক্ষাকবচের আগামী 22 জুলাই পর্যন্ত আদালত বহাল রাখলে কিছুটা হলেও অস্বস্তিতে পড়তে পারে সিবিআই বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!