এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > রাজনৈতিক সংঘর্ষের ফলে উত্তপ্ত পরিস্থিতি,অভিযোগের ফলা দুই রাজনৈতিক শিবিরের দিকে

রাজনৈতিক সংঘর্ষের ফলে উত্তপ্ত পরিস্থিতি,অভিযোগের ফলা দুই রাজনৈতিক শিবিরের দিকে

লোকসভা ভোটের পরবর্তী কাল থেকেই লক্ষ্য করা যাচ্ছিল পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক হিংসা ক্রমাগত ঊর্ধ্বমুখী বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিক সংঘর্ষের ফলে চূড়ান্ত অশান্তি ছড়িয়ে দিয়েছে অন্যদিকে রাজনৈতিক মহলে ধরনের রাজনৈতিক কেন্দ্র করে হত্যার ঘটনায় চূড়ান্ত বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে সম্প্রতি রাজনৈতিক সংঘর্ষের হেতু আবারো উত্তপ্ত হয়েছে বাগনানের মেল লোক গ্রাম তৃণমূল ও বিজেপি তুমুল সংঘর্ষের ফলে দু পক্ষের তরফ থেকেই আহতের সংখ্যা বাড়ে দু’দলই এই সংঘর্ষের জন্য দোষারোপ করতে থাকে একে অপরকে

এদিন তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে বাগনানের মেনলোক গ্রাম উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। তৃণমূলের তরফ থেকে বলা হয় সোমবার অঞ্চল সভাপতি শেখ আইয়ুব আলীর নেতৃত্বে তৃণমূলের একটি দল এলাকা পরিদর্শনে যান। সেখান থেকে ফেরার পথেই তাঁদের ওপর চড়াও হয় বিজেপি কর্মীরা। অন্যদিকে, বিজেপির দাবি এলাকায় নিত্যদিন সন্ত্রাস চালিয়ে যাচ্ছে তৃণমূল কর্মীরা। এ দিনের ঘটনা তৃণমূল সন্ত্রাসেরই ফল।

এই সংঘর্ষের ফলে আহত হয়েছেন দুই পক্ষের কমপক্ষে 12 জন। তাঁদেরকে বাগনান এবং উলুবেড়িয়া মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদিকে, গ্রামের মানুষরা অভিযোগ করেছে, সংঘর্ষের সাথে সাথে দুষ্কৃতীরা গ্রামবাসীদের বাড়ি ঢুকে ভাঙচুর ও লুটপাট চালিয়েছে। বাগনানের তৃণমূল বিধায়ক অরুণাভ হোসেন আবার অভিযোগ করেন, দীর্ঘদিন ধরেই তৃণমূল কর্মীদের ওপর অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে এলাকার বিজেপি সদস্যরা।

পাল্টা অভিযোগের দাবি করে হাওড়া গ্রামীণ জেলার বিজেপির সাধারণ সম্পাদক প্রত্যুষ মণ্ডল বলেন, এলাকায় নিত্যদিন সন্ত্রাস চালিয়ে যাচ্ছে তৃণমূলের গুন্ডারা। পরিস্থিতি ক্রমশ হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে। তিনি আরো বলেন, “আমাদের কর্মীদের মারধর করেছে ওরা। বাড়িঘর ভেঙে দিয়েছে। এলাকায় কোণঠাসা বলেই এখন হারানো জমি ফিরে পেতে সন্ত্রাস চালাচ্ছে তৃণমূল।”

অন্যদিকে এলাকার বাসিন্দারা জানান দুপুরের পর থেকেই এলাকায় তৃণমূলের বাহিনী জমায়েত করতে শুরু করে। আর তারপরেই শুরু হয়ে যায় হঠাৎ করেই এলাকায় বোমাবাজি। এ প্রসঙ্গে এলাকার এক গ্রামবাসী মঙ্গলা প্রামাণিক জানিয়েছেন, “নাতনিকে স্কুল থেকে আনতে যাচ্ছিলাম। যাওয়ার সময় তৃণমূলের জমায়েত দেখি। পাশ দিয়ে চলে যেতে পারবো ভেবেছিলাম। হঠাৎই একটা বোমা এসে পড়ে। আমার বাঁ হাতে চোট লেগেছে।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এই সংঘর্ষের ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে বাগনানের মেনলোক গ্রামে। খবর পেয়ে এলাকায় সাথে সাথে চলে আসে বিশাল পুলিশবাহিনী। পুলিশ দেখেই ছত্রাকার হয়ে যায় সংঘর্ষকারীরা। এখনো পর্যন্ত পুলিশের পক্ষ থেকে কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। অন্যদিকে তৃণমূল নেতৃত্ব থেকেও এই সংঘর্ষের ব্যাপারে কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। তবে সূত্রের খবর, এখনো এলাকায় বিশাল পুলিশবাহিনী টহল দিচ্ছে। পরিস্থিতি আপাতত আয়ত্তে।

সমস্ত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের দাবি, রাজনৈতিক সংঘর্ষের ফলে ক্রমাগত আহত, নিহতের সংখ্যা বাড়ছে রাজ‍্যে। সে ক্ষেত্রে সমস্ত রাজনৈতিক দলের এ ব্যাপারে ভাবা উচিত। রাজনৈতিক দলের অনেক ঊর্ধ্বে মানুষের প্রাণ, তা আজ সবকটি রাজনৈতিক দলই ভুলতে বসেছে। এ ব্যাপারে প্রতিটি রাজনৈতিক দলের নজর দেওয়া উচিত বলে মনে করছেন তাঁরা। এখনো পর্যন্ত সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে তদন্ত চলছে। আপাতত নতুন করে যাতে কোনো রাজনৈতিক সংঘর্ষ না ঘটে সেদিকে নজর রেখেছে প্রশাসন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!