এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বর্ধমান > ফের বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান – শাসকদলের দাবি ঘিরে বিস্ফোরক অভিযোগ গেরুয়া শিবিরের

ফের বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান – শাসকদলের দাবি ঘিরে বিস্ফোরক অভিযোগ গেরুয়া শিবিরের

Priyo Bandhu Media

2019 এর লোকসভা নির্বাচনের পরে বিজেপি দলে যোগ দেওয়ার প্রবণতা ব্যাপকহারে বৃদ্ধি পেয়েছিল। অন্যান্য দল ও তৃণমূল থেকে বহুল পরিমাণে সদস্যরা এসে বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন। ফলে রাজ্যের বহু পুরসভা, পঞ্চায়েতের রং বদল হয়ে যায়। কিন্তু বর্তমানে বেশ কিছুদিন ধরেই বিজেপি থেকে শাসক দলে ফিরতে শুরু করেছে দলবদলকারীরা। এর ফলে পদ্ম শিবিরে রীতিমতো চিন্তার ভাঁজ। তবে বিজেপির দাবি, বহু জায়গায় মানুষের কাছে বিজেপিকে রাজনৈতিকভাবে খাটো করানোর জন্য গুজব ছড়ানো হচ্ছে দলবদল হয়েছে বলে।

সোমবার বিকেলে গলসির জাঁহাপুরে কেন্দ্রীয় সরকারের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে ও এনআরসির প্রতিবাদ জানিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে একটি দলীয় সভার আয়োজন করা হয়। এই সভায় উপস্থিত ছিলেন বিষ্ণুপুর জেলা পরিষদের সভাপতি দেবু টুডু। আর সেখানেই দেবু টুডু বিজেপির বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক প্রতিবাদ শুরু করেন। এমনকি বিষ্ণুপুরের সংসদ সৌমিত্র খাঁ এর বিরুদ্ধে আপত্তিজনক অভিযোগ করেন তিনি।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিনের সভায় দেববাবু ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বর্ধমান পৌরসভার বিদায়ী কাউন্সিলর খোকন দাস। এ দিনের সভা শেষে তৃণমূল দাবি করে, বিজেপি থেকে প্রায় 70 জন তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। আর এই দাবি ঘিরেই বিজেপি শিবিরে ক্ষোভ জমেছে। বিরোধী শিবিরের দাবি, তৃণমূল ইচ্ছাকৃতভাবে জনসমক্ষে বলে দিচ্ছে দলবদল হয়েছে, যার আদৌ কোনো ভিত্তি নেই। এ দিনে তৃণমূলের দাবিকে সম্পূর্ণ অস্বীকার করা হয় বিজেপির পক্ষ থেকে। দলবদল এর ঘটনাকে সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে দাবি করা হয়।

তবে স্থানীয় বিজেপির পক্ষ থেকে অবশ্য দাবি করা হয়েছে, শাসক দল থেকে প্রতিনিয়ত ভয় দেখিয়ে দল ভাঙার কাজ চলছে। তবে গলসির দলীয় মঞ্চ থেকে যে যে দাবি করা হয়েছে তৃণমূলের পক্ষ থেকে , তা সর্বৈব মিথ্যা বলে দাবি করা হয়েছে বিজেপির পক্ষ থেকে। বিজেপি আরো অভিযোগ জানিয়েছে, বারংবার বিজেপি থেকে তৃণমূলে যাচ্ছে এই কথা প্রকাশ করে তাদের রাজনৈতিক ভাবমূর্তিকে খাটো করার চেষ্টা করছে শাসক শিবির। আপাতত অভিযোগ, প্রতি অভিযোগের খেলায় কে যেতে তার জন্য নজর রাখতে হবে সামনের 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনের দিকে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!