এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ডেডলাইন সোমবার! সুপ্রিম নির্দেশে রাজীব কুমারের গ্রেপ্তারি নিয়ে ক্রমশ বাড়ছে জল্পনা

ডেডলাইন সোমবার! সুপ্রিম নির্দেশে রাজীব কুমারের গ্রেপ্তারি নিয়ে ক্রমশ বাড়ছে জল্পনা

এবার শীর্ষ আদালতের তরফে কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার সম্পর্কিত মামলায় সিবিআইয়ের সওয়াল সন্তোষজনক হলেই তিনি পরবর্তী নির্দেশ দেবেন বলে জানিয়ে দিলেন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ। জানা গেছে, আগামী সোমবারের মধ্যেই এই ব্যাপারে কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে তার লিখিত বক্তব্য জমা দিতে হবে।

আর এরপরই আগামী 15 এপ্রিল এই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, সারদার কর্ণধার সুদীপ্ত সেন এবং দেবযানী মুখোপাধ্যায় নিজের মোবাইল মারফত কার কার সঙ্গে কথা বলেছেন সেই ব্যাপারে একটি তালিকা ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআইয়ের হাতে চলে এসেছে।

আর এই তালিকা নিজেদের হাতে আসার পরই সিবিআইয়ের পক্ষ থেকে দেশের শীর্ষ আদালতে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, ভোডাফোনের পক্ষ থেকে তারা যে কললিস্ট পেয়েছে তাতে স্পষ্ট ভাবে দেখা যাচ্ছে যে, এতে রাজ্যের অনেক তথ্যই অসম্পূর্ণ রয়েছে। তবে ভোডাফোন তাদের কল লিস্টের তালিকা দিলেও এয়ারটেলের পক্ষ থেকে এখনও কোনও তালিকা পাওয়া যায়নি বলে সিবিআইয়ের পক্ষ থেকে আদালতে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত, সারদা সহ আরও অনেক চিটফান্ড মামলায় গত 2014 সালে সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়। কিন্তু এই চিটফান্ড তদন্তে বাংলার সরকার ঠিকমতো তাদের সাহায্য করছে না বলে অনেকদিন আগেই সুপ্রিম কোর্টে অভিযোগ জানিয়েছে সিবিআই।

আর সেই রকম আবেদনের ভিত্তিতে তদন্তে সবরকম সাহায্য করার জন্য রাজীব কুমারকে নির্দেশ দিয়েছে দেশের শীর্ষ আদালত। তবে কোনোভাবেই রাজীব কুমারকে গ্রেফতার করা যাবে না বলেও জানিয়ে দিয়েছিল সর্বোচ্চ আদালত।

আর এবার এই সম্পর্কিত মামলার শুনানিতে শীর্ষ আদালতের বিচারপতি রঞ্জন গগৈ বলেন, “রাজীব কুমার আগে তার বক্তব্য জানাক। আর তারপর যদি সিবিআই তার বক্তব্যে সন্তুষ্ট হয়ে মনে করে যে রাজীব কুমারকে গ্রেফতারের প্রয়োজন আছে, তাহলে আমাদের আগের নির্দেশ বদলে দেব।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!