এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > গরু নিয়ে বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ করা কংগ্রেস শাসিত রাজ্যেই এবার গরু নিয়ে বিশেষ সরকারি পদক্ষেপ!

গরু নিয়ে বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ করা কংগ্রেস শাসিত রাজ্যেই এবার গরু নিয়ে বিশেষ সরকারি পদক্ষেপ!

কংগ্রেস, তৃণমূল কংগ্রেস থেকে শুরু করে সমস্ত বিরোধী দলের অভিযোগ গরু নিয়ে বড় বেশি মাতামাতি করে বিজেপি। গো-মাতাকে বিশেষ যত্ন নিতে গো-রক্ষকদের ‘তান্ডব’ নিয়ে অভিযোগের শেষ নেই বিরোধীদের। অথচ এবার সেই বিরোধীদের অন্যতম কংগ্রেস শাসিত রাজ্যেই বেওয়ারিশ গরু দত্তক নিলে মিলতে চলেছে বিশেষ সরকারি সম্মান!

রাজস্থানে বিজেপিকে হারিয়ে ক্ষমতায় এসেই অশোক গেহলটের নেতৃত্বাধীন কংগ্রেস সরকার ঘোষণা করেছেন, যে সমস্ত নাগরিক রাস্তার বেওয়ারিশ গরুকে দত্তক নেবেন তাদের বিশেষ সম্মান দেবে রাজ্য সরকার। গো-পালন ডিরেক্টরেটের তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানানো হয়েছে, যে সমস্ত নাগরিকরা রাস্তার বেওয়ারিশ গরু দত্তক নেবেন তাদের বিশেষ সম্মান দেবে সরকার।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

ফলে, প্রশ্ন উঠছে – এতদিন কি তাহলে বিজেপির গো-রাজনীতির যে তীব্র বিরোধিতা করত কংগ্রেস তা কি পুরোটাই লোক দেখানো? নাকি মুখে যতই ধর্মনিরপেক্ষ কথা বলা হোক, গো-বলয়ের রাজনীতিতে গো-মাতার যে বিশেষ ভূমিকা আছে – তা প্রকারন্তরে মেনে নিচ্ছে কংগ্রেসও? কেননা রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট জানিয়েছেন, বেওয়ারিশ গরুদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নিলেই আগামী ২৬ শে জানুয়ারি প্রজাতন্ত্র দিবস এবং ১৫ ই আগস্ট স্বাধীনতা দিবসে সাধারণ নাগরিকদের আলাদা করে সম্মান প্রদর্শন করবে সরকার।

যদিও কংগ্রেসের তরফে এই প্রসঙ্গে জানানো হয়েছে, গো-বলয়ের অন্যান্য রাজ্যের মত রাজস্থানেও বেওয়ারিশ গরুর অত্যাচার একটা বড় সমস্যা। এই ধরনের গরুরা প্রচুর ফসল নষ্ট করার পাশাপাশি রাস্তাঘাটও প্রচুর পরিমানে নোংরা করে। এই সমস্যা থেকে জনগণকে মুক্তি দিতে রাজ্যের প্রতিটি জেলায় গোশালা তৈরির পরিকল্পনা করছে রাজ্য সরকার। কিন্তু যতদিন না তা হচ্ছে ততদিন সাধারণ মানুষের গরুদের প্রতি আন্তরিকতাতেই ভরসা রাখতে চাইছে রাজস্থান সরকার।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!