এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > খরচ কমাতে এবার নয়া সিদ্ধান্ত নিলো ভারতীয় রেল

খরচ কমাতে এবার নয়া সিদ্ধান্ত নিলো ভারতীয় রেল

কেন্দ্রীয় সরকারের সর্ব বৃহৎ দফতর ভারতীয় রেলের ব্যয় ভার হ্রাস করতে এবার নয়া উদ্যোগ নেওয়া হতে চলেছে। সেই উদেশ্য বাস্তবায়নের লক্ষ্যে প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে রেল বোর্ড আরপিএফ দপ্তরগুলি থেকে কেরাণী পদের অবলুপ্তির সিদ্ধান্ত নিলো। ঐ পদের যাবতীয় কাজ এখন থেকে আরপিএফ জওয়ানরাই করবেন বলে সংশ্লিষ্ট দফতর সূত্রে বলা হয়েছে। কাজের স্বচ্ছতা এবং কাজের একটি নির্দিষ্ট মান বজায়ের লক্ষ্যেই এমন সিদ্ধান্ত ।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

ইতিমধ্যেই বোর্ড কমিটি গঠন করে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলেছে কমিটিকে। কমিটি খতিয়ে দেখবে, চিফ সিকিউরিটি কমিশনারের অফিস ও ডিভিশনাল সিকিউরিটি কমিশনের দপ্তরগুলিতে কত কর্মী কাজ করেন। তাঁদের বর্তমান অবস্থান ও কার্যকারিতা কেমন, আরপিএফ কর্মীরা কীভাবে তা সামলাবেন ইত্যাদি । তার ভিত্তিতেই কমিটি রিপোর্ট তৈরী করে রেল বোর্ডকে পেশ করবে।

এই প্রসঙ্গে আরপিএফ’র এক কর্তা ব্যক্তি জানালেন, সদর দপ্তরে অর্থাৎ আইজির কাছে কোনওরকম আপিল এলে মাসের পর মাস ফেলে রাখা হয়, ডিভিশনের কোনও ডেভলপমেন্ট সংক্রান্ত রিপোর্ট আইজির কাছে পাঠানো হলে তা যথাযথ ভাবে পুট আপ হয় না। কত চিঠি রেজিস্ট্রি হল, কী অ্যাকশান নেওয়া হল তার রেজিস্টারে রাখা হয় না বলে তাঁরা অভিযোগ করেন। রেলের এই আধা সামারিক বাহিনীর দপ্তরে এই ধরনের কর্তব্যপরায়ণতা এক প্রকার অপচয় বলেই মনে করছেন ভারতীয় রেল দফতর। তাই ঐ দফতরে একজন সাধারণ কেরাণীর কোনো প্রয়োজন নেই।
একজন কেরাণীর করণীয় কাজগুলি আরপিএফ কর্মীরাই সামালতে পারবেন বলে মনে করা হচ্ছে। কিন্তু রেল দফতরের এই সিদ্ধান্তকে কেন্দ্র করে নানা মহলে নানা কথা বার্তা শুরু হয়েছে। সওয়াল উঠছে আরপিএফ জওয়ানদের বিরুদ্ধে যেখানে নিরাপত্তা সংক্রান্ত একাধিক অভিযোগ রয়েছে সেখানে তারা যদি নিজেদের প্রয়োজনে অফিস ক্লার্কের কাজ করতে শুরু করেন তাহলে যাত্রীদের নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়ে যে স্থিথিলতা তৈরী হবে তা অস্বীকার করার কোনো উপায় থাকবেনা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!