এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > “তৃণমূলের শ্মশানযাত্রার সময় চলে এসেছে” বিস্ফোরক বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা

“তৃণমূলের শ্মশানযাত্রার সময় চলে এসেছে” বিস্ফোরক বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা

রামনবমী পালন করবে তৃণমূল এই খবর সামনে আসতেই বিজেপি একের পর এক আক্রমণ করছে তৃণমূলকে। এর আগেই লকেট চ্যাটার্জী “নাকাল-রামনবমী” বলেছেন তৃণমূলের র্যাম নবমী পালনকে। বিজেপি অন্য নেতাদের মতেও তৃণমূল ভোট বাড়াতে এইসব করছে। এর এবার মাঠে নামলেন রাহুল সিনহা। তিনি এদিন তৃণমূলকে একহাত নিলেন। কড়া ভাষায় আক্রমণ করে জানালেন যে,“তৃণমূলের শ্মশানযাত্রার সময় চলে এসেছে। আর সেই কারণেই রাম নামের আয়োজন করা হচ্ছে।” এতেই থেমে না থেকে এদিন রাহুলবাবু জানান যে, “কেউ যখন অন্তিম পথে যাত্রা করে তখন তাকে শ্মশানঘাট পর্যন্ত রাম নাম করতে করতেই নিয়ে যাওয়া হয়। তৃণমূলেরও শ্মশানযাত্রায় সময় চলে এসেছে। আর সেই কারণেই রাম নামের আয়োজন করা হচ্ছে। রাম নাম করে তাদের অন্তিম যাত্রায় পাঠানো হবে।”

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন – প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

ধর্মীয় মেরুকরণ করে পশ্চিমবঙ্গের আর সর্বনাশ করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই অভিযোগ করেন মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে। এদিন তিনি এই নিয়ে বলেন যে,”মুখ্যমন্ত্রীকে বলতে চাই ধর্মীয় মেরুকরণ করে পশ্চিমবঙ্গের আর সর্বনাশ করবেন না।” পাশাপাশি প্রশ্ন তোলেন যে ,”রামনবমীতে অস্ত্র ব্যবহার নিয়ে এতবার চিৎকার করছেন। আর যখন মহরমে অস্ত্র নিয়ে মিছিল হচ্ছে তখন চুপ থাকছেন কেন ? পশ্চিমবঙ্গে যদি ন্যায়ের শাসন চলে থাকে তাহলে সব ধর্মের সমান অধিকার হওয়া উচিত ছিল। কিন্তু, সব ধর্মের সমান অধিকার দেওয়ার মতো সাহস ওদের নেই। রাম জন্মভূমি নিয়ে রাজনীতি করছে তৃণমূল কংগ্রেস। তাদের পক্ষ থেকে এই রাম জন্ম উৎসবকে রাজনৈতিক মোড়কে মোড়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। ” পাশাপাশি কটাক্ষ করতেও ছাড়েন নি তিনি। তিনি বলেন,”তবে ভূতের মুখে রাম নাম করাতে পেরে আমরা খুব খুশি। তাদের মুখে রাম নাম করানোর পুরো কৃতিত্ব বিজেপি -র।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!