এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > রাহুল গান্ধীর বক্তব্য ও পাকিস্তান নিয়ে তীব্র আক্রমন করে কংগ্রেসকে তুলোধোনা অমিত শাহের

রাহুল গান্ধীর বক্তব্য ও পাকিস্তান নিয়ে তীব্র আক্রমন করে কংগ্রেসকে তুলোধোনা অমিত শাহের

সম্প্রতি সংসদের দুই কক্ষেই কাশ্মীরের 370 ধারা বিলোপ করে সেই আইন পাস করিয়েছে কেন্দ্র। যার পরেই দেশের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এর প্রবল বিরোধিতা করা হয়েছিল। কিন্তু এবার এই ইস্যুতে কংগ্রেসের
রাহুল গান্ধীকে কড়া ভাষায জবাব দিতে দেখা গেল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে।

সূত্রের খবর, রবিবার দাদরা ও নগর হাভেলির সিলভাসায় আয়োজিত এক জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, “রাহুল গান্ধীর বক্তব্যকে ভারতের বিরুদ্ধে ব্যবহার করছে পাকিস্তান। এর জন্য কংগ্রেসের লজ্জা হওয়া উচিত।” জানা যায়, সম্প্রতি রাষ্ট্রসঙ্ঘে কাশ্মীর নিয়ে একটি পিটিশন দাখিল করতে গিয়ে কংগ্রেসের রাহুল গান্ধীর একটি মন্তব্যকে ভারতের বিরুদ্ধে ব্যবহার করেছিল পাকিস্তান।

এদিন সেই প্রসঙ্গ তুলে ধরেই কংগ্রেসকে বিধেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, “৩৭০ ধারা বাতিল ও কাশ্মীরকে দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করার সিদ্ধান্তকে সারা দেশ যেখানে সাধুবাদ জানাচ্ছে, সেখানে কিছু মানুষ এখনও তার বিরোধিতা করে চলেছে।” আর এরপরই সরাসরি কংগ্রেসকে আক্রমণ করে অমিত শাহের মন্তব্য, ‘৩৭০ ধারা বাতিলের বিরোধিতা করেছিল কংগ্রেস। রাহুল গান্ধী যা মন্তব্য করেন, পাকিস্তান তার প্রশংসা করে। রাষ্ট্রসঙ্ঘে দায়ের করা পিটিশনেও তারা সেই মন্তব্য যোগ করেছে। এই ধরনের মন্তব্যকে এভাবে ভারতেরই বিরুদ্ধে ব্যবহার হতে দেখে কংগ্রেস নেতৃত্বের লজ্জা হওয়া উচিত।’

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কাশ্মীরে এই ৩৭০ ধারা বাতিল হওয়ার পর সেখানকার পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠেছে এবং সেখানে ‘মানুষের মৃত্যুর’ রিপোর্টও রয়েছে বলে মন্তব্য করে সোরগোল তুলে দিয়েছিছিলেন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল। আর তাঁর সেই মন্তব্যকেই ইস্যু করে কাশ্মীর নিয়ে রাষ্ট্রসঙ্ঘে দায়ের করা পিটিশনে অন্তর্ভূক্ত করে ইসলামাবাদ। এদিন সেই সমস্ত বক্তব্যও খণ্ডন করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, “৩৭০ ধারা বাতিল হওয়ার পর থেকে এখনও পর্যন্ত উপত্যকায় একটিও গুলি চলেনি বা কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটানো হয়নি। মানুষের মৃত্যু তো অনেক দূরের কথা। এখন কাশ্মীরের আইন-শৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে। আমি দেশবাসী এবং গোটা পৃথিবীকে বলতে চাই, কাশ্মীরে শান্তি রয়েছে।”

অন্যদিকে ৩৭০ ধারা বাতিল হওয়ায় জম্মু ও কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে বলেও দাবি অমিত শাহের। পাশাপাশি এই গোটা ঘটনা নিয়ে সরকারের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করা প্রসঙ্গে বিরোধীদের কাঠগড়ায় তুলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি বলেন, “ভারতীয় জনতা পার্টি এবং তাদের পূর্বসূরী ভারতীয় জন সঙ্ঘও বিরোধী আসনে থাকাকালীন জাতীয় স্বার্থের প্রশ্নে, যেমন— চীন ও পাকিস্তানের সঙ্গে যুদ্ধ, জম্মু ও কাশ্মীরের অন্তর্ভূক্তির প্রস্তাব ইত্যাদি ইস্যুতে সরকারের পাশে দাঁড়িয়েছিল। এটা আমাদের দেশের দীর্ঘদিনের পরম্পরা। যখন জাতীয় স্বার্থের বিষয় আসে তখন সকলকে দল-রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে দেশের জন্য ভাবতে হয়। কিন্তু আপনারা (কংগ্রেস) সেই পরম্পরা ভাঙছেন। আপনারা জানেন না, ভোটব্যাঙ্কের রাজনীতি করলে মানুষও আপনাদের তেমনই প্রতিদান দেবে।”

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, 370 ধারা বিলোপ নিয়ে রাহুল গান্ধীর বক্তব্যকে কোট করেই এবার তাকে চাপে ফেলার চেষ্টা করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। যা জাতীয় রাজনীতিতে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মত বিশ্লেষকদের।

আপনার মতামত জানান -
Top