এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কৃষক সমাবেশে যোগ দিয়ে মাস্টারস্ট্রোক বক্তৃতা রাহুলের

কৃষক সমাবেশে যোগ দিয়ে মাস্টারস্ট্রোক বক্তৃতা রাহুলের

কৃষক সমাবেশে যোগ দিয়ে মাস্টারস্ট্রোক বক্তৃতা রাহুলের। আজ মধ্যপ্রদেশের মন্দসৌরে কৃষকদের সমাবেশে যোগ দিয়েছিলেন কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী। আর সেখান থেকেই লোকসভা নিয়ে মাস্টারস্ট্রোক দিলেন রাহুল। দেশে মোদী সরকারের বিরুদ্ধে ফুঁসছে কৃষকসমাজ আর আজ তার ফায়দা তুলে লোকসভার প্রচারটাও সারলেন রাহুল গান্ধী। আজ তিনি কৃষক সমাবেশে যোগ দিয়ে এই দাবি করলেন যে আগামী লোকসভা ভোটে কংগ্রেসকে সমর্থন করে ক্ষমতায় আনলে দেশের কৃষকদের কৃষিঋণ মুকুব করে দেবে কংগ্রেস। তিনি বলেন, “আমি আপনাদের নিশ্চিত করছি সম্পূর্ণ কৃষিঋণ মুকুব করে দেওয়া হবে লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসকে সমর্থন করলে। তার জন্য ১১ দিন সময় লাগবে না। ১০ দিনেই করে দেওয়া হবে। বাড়বে কর্মসংস্থানও। মানুষের নিরাপত্তা আমাদের কাছে প্রধান বিষয়।” এদিন তিনি মোদী সরকারকে আক্রমণ করতেও ছাড়েননি। তিনি দেশের যুবসমাজের বেকারত্বের ইস্যুকে আগুনে ঘি ঢেলে প্রধানমন্ত্রীকে অখ্যাত নিয়ে বলেন দেশের যুবসমাজের জন্য কর্মসংস্থান না করে প্রধানমন্ত্রী মেক ইন ইন্ডিয়ার স্লোগান দিচ্ছেন।সাথে কংগ্রেসের জয়গান গেয়ে দাবি করেন এখন একমাত্র কংগ্রেসই পারে যুবদের কর্মসংস্থান করতে এবং কৃষকদের নিরাপত্তা দিতে। শুধু মোদী সরকারকে আক্রমণ করেন ক্ষান্ত হননি কংগ্রেস প্রধান।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

সাথেই এদিন তিনি মধ্যপ্রদেশের শিবরাজ সিং চৌহানের সরকারকে একহাত নেন। বলেন, “এই সরকার কৃষকদের আত্মহত্যার নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা না করে বিজেপি ব্যস্ত শিল্পপতিদের নিয়ে দহরমমহরম করতে। কোথায় গেল প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া কর্মসংস্থানের প্রতিশ্রুতি?‌ কোথায় গেল কৃষকদের আর্থিক নিরাপত্তার প্রতিশ্রুতি?‌ আর কি হল মেক ইন ইন্ডিয়া করে?‌ আপনারা যদি দেখেন প্রধানমন্ত্রী যে ফোনটি ব্যবহার করেন, তা চীনের তৈরি। কিন্তু আপনারা যদি কংগ্রেসকে ভোট দিয়ে ক্ষমতায় আনেন তাহলে এই মন্দসৌরেই ফোন তৈরি হবে।”
এদিন বিজয় মালিয়া আর নীরব মোদির প্রসঙ্গ তুললেও ভুললেন না তরুণ তুর্কি। তিনি বলেন, “আজ সাধারণ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। অথচ বিজয় মালিয়া, নীরব মোদি এবং মেহুল চোকসিকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। যাঁরা দেশের কোটি কোটি টাকা লুঠ করেছেন। আর আমরা নিশ্চিত করছি আপনার টাকা আপনাদেরই থাকবে, যদি আপনাদের সমর্থন পাই।” এদিন কৃষক আন্দোলনে গিয়ে তাদের কৃষিঋণ মুকুব করার কথা বলে মাস্টারস্ট্রোকে দিলেন বলেই মনে করছে রাজনৈতিকমহল। কেননা এখন কৃষকসমাজ মোদীসরকারের উপর বিরক্ত ও ক্ষোভ জমে আছে অনেক। ফলে এই সময় ক্ষতে আবার একটু মলমের প্রলেপ দিলেন বলেই মত সংশ্লিষ্ট মহলের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!