এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > রাহুল গান্ধী রাফাল নিয়ে বিস্ফোরক অথচ আম্বানির হয়ে মামলা লড়ছেন কপিল সিব্বাল – “দ্বিচারিতা” নিয়ে ঝড় সোশ্যাল মিডিয়ায়

রাহুল গান্ধী রাফাল নিয়ে বিস্ফোরক অথচ আম্বানির হয়ে মামলা লড়ছেন কপিল সিব্বাল – “দ্বিচারিতা” নিয়ে ঝড় সোশ্যাল মিডিয়ায়

অনেকে বলেন, “রাজনীতিকরা 180 ডিগ্রি ঘুরে যেতে দু মিনিট সময় নেয় না। আর জাতীয় রাজনীতিতে কংগ্রেসী রাজনীতিতে বিশ্বাসী বর্ষীয়ান আইনজীবী কপিল সিব্বালের গতিবিধি দেখে অনেকেই এখন তাঁর সম্পর্কে নানা মন্তব্য করতে শুরু করেছেন। অনেকে বলছেন, “এ যেন সাপের গালেও চুমু, আবার বেদের গালেও চুমু।” কিন্তু কেন হঠাৎ এই কংগ্রেস নেতা তথা আইনজীবী কপিল সিব্বালকে ঘিরে এহেন মন্তব্য করা হচ্ছে?

সূত্রের খবর, মঙ্গলবার সকালে এই কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বাল কেন্দ্রের মোদি সরকারকে কটাক্ষ করে “চৌকিদার চোর হ্যায়, অনিল আম্বানি চোর হ্যায়” বলে সোরগোল তুলেছিলেন। কিন্তু বেলা গড়াতে না গড়াতেই সেই অনিল আম্বানিকে বাঁচাবার জন্য সেই কপিল সিব্বলকে সেই অনিল আম্বানির হয়ে সুপ্রিম কোর্টে সওয়াল করতে দেখা গেল। আর কংগ্রেস নেতা তথা বর্ষীয়ান আইনজীবী কপিল সিব্বালের এই আচরণকে নিয়েই এবার হাসির রোল উঠেছে বিভিন্ন মহলে।

কিন্তু সকালে কেন্দ্রের মোদী সরকার ও অনিল আম্বানির বিরুদ্ধে কথা বলেও বেলা গড়াতে না গড়াতেই টেলিকম সংস্থা এরিকসন ইন্ডিয়ার তোলা অনিল আম্বানির বিরুদ্ধে করা অভিযোগের বিরুদ্ধেও অনিল আম্বানির ওই আদালতে বর্ষিয়ান কংগ্রেস নেতা তথা আইনজীবী কপিল সিব্বালকে দেখা যাওয়ায় টুইটারে অনেকেই কপিল সিব্বালের এহেন আচরণের বিরুদ্ধে সরব হয়ে উঠেছেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

একাংশের মতে, যখন খোদ কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী কেন্দ্রের মোদি সরকারের বিরুদ্ধে সুযোগ পেলেই সরব হয়ে উঠছেন, ঠিক তখনই সেই কংগ্রেসেরই প্রবীণ নেতা কপিল সিব্বাল মোদির বিরুদ্ধে সরব হয়েও পরবর্তীতে পাল্টি খেয়ে অভিযুক্ত অনিল আম্বানির পক্ষে আদালতে যেভাবে সওয়াল করলেন কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব অনেকটাই চাপে পড়ল। এদিন এই প্রসঙ্গে কপিল সিব্বালের এই দ্বিমুখী নীতি নিয়ে টুইটারে তাকে খোঁচা দিয়ে এক ব্যাক্তি বলেন, “কপিল সিব্বাল সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হিসেবে অনিল আম্বানির হয়ে লড়ে প্রচুর টাকা কামিয়ে বিলাসবহুল জীবন কাটান। আবার প্রকাশ্যে রাজনীতিক হিসেবে সেই অনিল আম্বানিকে আক্রমন করে কংগ্রেসে ফায়দা লোটেন।”

তবে যে যাই বলুক না কেন, এই বিষয়ে অতটা মাথা ঘামাতে রাজি নন সেই কপিল সিব্বাল। কিন্তু নিজের পেশার সঙ্গে রাজনীতির কোনো সম্পর্ক নেই বলে এদিন গোটা বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন তিনি। তবে কপিল সিব্বাল এই বিষয়টি এড়িয়ে গেলেও এটাকে কেন্দ্র করে কংগ্রেস যে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে একটু হলেও অস্বস্তিতে পড়বে সেই আশঙ্কা একেবারে উড়িয়ে দিচ্ছে না হাত শিবিরের অনেক নেতারাই।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!