এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > রাফাল ইস্যুতে মোদীর পাশে দাড়িয়ে বিপাকে শরদ পাওয়ার, দল ছাড়লেন হেভিওয়েট নেতা

রাফাল ইস্যুতে মোদীর পাশে দাড়িয়ে বিপাকে শরদ পাওয়ার, দল ছাড়লেন হেভিওয়েট নেতা

দেশে বিজেপিকে ঠেকাতে তৈরি হয়েছে বিরোধী মহাজোট। রাফায়েল ইস্যুতে বর্তমানে বিজেপিকে চেপে ধরেছে বিরোধীরা। কিন্তু হঠাৎই যেন বিনামেঘে বজ্রপাত হল এই বিরোধীদলগুলির অন্দরমহলে। সূত্রের খবর, গত কদিন ধরে এই রাফায়েল নিয়ে যখন বিরোধীরা প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদীর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলছেন ঠিক তখনই সেই বিরোধী জোটেই থাকা এনসিপি সুপ্রিমো শরদ পাওয়ার বলেন, “রাফাল ইস্যুতে মোদীর সদিচ্ছা নিয়ে আমার কোনোও প্রশ্ন নেই। বিরোধীরা এই ব্যাপারে যে তথ্য প্রকাশ্যে আনার কথা বলছে তা সম্পূর্ন অযৌক্তিক।”

এদিকে শরদ পাওয়ারের মুখে এহেন মোদী স্তুতি শুনে প্রবল বিপাকে পড়ে বিরোধী দলগুলি। আসরে নামে বিজেপিও। সংকীর্ন রাজনীতি ভুলে জাতীয় নিরাপত্তাকে প্রাধান্য দেওয়ার জন্য এই এনসিপি সুপ্রিমোকে ধন্যবাদও জানান বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। এদিকৈ এই ঘটনায় বিজেপি যাতে বাড়তি অক্সিজেন না পায় সেই কারনে এনসিপির তরফ থেকেও স্পষ্টভাবে জানিয়ে দেওয়া হয় যে, শরদ পাওয়ার মোদীর প্রশংসা করেননি। শুরুতে মোদীর সদিচ্ছা নিয়ে প্রশ্ন ছিল না তিনি শুধুই এইকথা বলেছেন। তবে এনসিপি ব্যাপারটিকে কোনোক্রমে মোকাবিলা করলেও এর প্রবল রেশ পড়ল দলের অন্দরে।

জানা গেছে, সোনিয়া গান্ধী কংগ্রেস সভাপতির দ্বায়িত্ব নেওয়ার পর শরদ পাওয়ারের হাত ধরেই যিনি কংগ্রেস ছেড়ে বেরিয়ে এসেছিলেন এবং বর্তমিনে এই এনসিপির গুরুত্বপূর্ন নেতা তারিক আনোয়ার সেই এনসিপি দল ছেড়ে বেরিয়ে এলেন। জানা গেছে, বিহারে এই এনসিপি দল প্রতিষ্টার পেচনে তাঁর অন্যতম ভূমিকা ছিল। কিন্তু কেন তিনি বেরিয়ে এলেন?

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এদিন এই প্রশ্নের উত্তরে বিহারের কাটিহারের সাংসদ তারিক আনোয়ার বলেন, “শরদ পাওয়ারের মন্তব্য দুর্ভাগ্যজনক। আমি খুব কষ্ট পেয়েছি।” তবে এনসিপি ছাড়ার পর তার পরবর্তী রাজনৈতিক দল কি কংগ্রেস! এই প্রশ্নের কোনো জবাব না দিয়ে কৌশলি আনোয়ার সাহেব বলেন, “সমর্থকদের সাথে কথা বলেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেব।” সব মিলিয়ে এবার শরদ পাওয়ারের গলায় মোদী স্তুতি শুনে হেভিওয়েট নেতা দল ছাড়ায় প্রবল চাপে এনসিপি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!