এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > “পুরুলিয়া যাব, বিরোধী শূন্য করে দিয়ে চলে আসবো ” : অভিষেক ব্যানার্জী

“পুরুলিয়া যাব, বিরোধী শূন্য করে দিয়ে চলে আসবো ” : অভিষেক ব্যানার্জী

দেশ জুড়ে পেট্রোল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি আশঙ্কায় ফেলেছে সাধারণ মানুষকে। কারণ এর ফলেই স্বাভাবিকভাবেই বাড়তে চলেছে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী। এর প্রতিবাদে বিক্ষোভে সামিল হতে দেখা গেলো এদিন রাজ্যের শাসকদল ও কংগ্রেসকে। কোলকাতায় গান্ধী মূর্তির পাদদেশে বিক্ষোভ আন্দোলন করল তৃণমূল। আন্দোলনের মুখ ছিলেন শাসকদলের যুবনেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। আন্দোলনে সামিল হতে দেখা গেলো সুব্রত বক্সি,কাকলি ঘোষদস্তিদার সহ অন্যান্য শাসকদলের হেভিওয়েট নেতাদের।

 

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

বিক্ষোভ মঞ্চ থেকেই সরাসরি মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে গর্জে উঠেলন যুবনেতা। জানালেন, সম্প্রতি কলকাতায় লিটার পিছু পেট্রোলের দাম বেড়ে হয়েছে ৮২ টাকা এবং ডিজেল পাওয়া যাচ্ছে ৭৩ টাকায়। ওই মূল্য ১০০ হওয়ার আগেই কেন্দ্র থেকে সরাতে হবে নরেন্দ্র মোদীকে। নাহলে পেট্রেপন্যের মূল্যবৃদ্ধি ঠেকানো যাবে না। এর পাশাপাশি বিজেপিকেও তীব্রভাবে হুমকি দিয়ে বলেন যে ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে দার্জিলিং এ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে চলেছে তৃণমূল। বিজেপি কিছুই করতে পারবে না। এর আগেও রাজ্যের পদ্মশিবির দাবী করেছিলো পঞ্চায়েত নির্বাচনে নাকি পুরুলিয়ায় তাঁদের ফল ভালো হয়েছিলো। কিন্তু সে নমুনার তো দেখা মিলল না। শাসকদলই তো ঝান্ডা গেরেছে সেখানে। ১ জুন তিনি নাকি পুরুলিয়া গিয়ে একেবারে বিরোধীশূন্য করে দিয়ে আসবেন ওই জেলাকে। এমনটাই জানালেন তিনি। এখানেই ক্ষান্ত হননি তিনি। রাজ্যের বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষকেও কটাক্ষ করে তিনি জানান, “দিলীপবাবুকে দেখলে বলবেন একটু দার্জিলিং থেকে ঘুরে আসতে। খুব গরম তো। আগেরবার যা হয়েছিল।” এরপর কটাক্ষের সুর চড়া করে তিনি আরো বলেন যে তিনি স্বামীজির হিন্দু ধর্মে বিশ্বাস রাখেন,যোগীজির হিন্দুত্বে নয়। জয় শ্রী রাম তিনিও বলেন কিন্তু জয় শ্রী রাম বলে রাস্তায় অস্ত্র মিছিল নামান না। এমনভাবেই বিজেপিকে বাক্যবাণের বিঁধলেন তৃণমূলের এই যুবনেতা। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই বিজেপি বিরোধী মন্তব্য স্বাভাবিকভাবেই গুঞ্জন শুরু করেছে বিরোধীমহলে।

রাজনৈতিক সূত্রের খবর থেকে জানা যাচ্ছে যে, এদিন বেলা ১২ টা নাগাধ শুরু হওয়া এই বিক্ষোভ আন্দোলনে নাকি প্রতিবাদ করতে মোদীজির কুশপুতুল পোড়ান তৃণমূলের দলীয় কর্মী এবং সমর্থকরা। আন্দোলন শেষ হলেও প্রতিবাদ আগুন নিভতে দেননি অভিষেকবাবু। তেলের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদ জানাতেই গাড়িকে বাদ দিয়ে পায়ে হেঁটে দলীয় কার্যালয়ে ফিরলেন তিনি। এবং সভায় উপস্থিত সমর্থকদের প্রতিবাদের একই পন্থা গ্রহন করার জন্য অনুরোধ করেন তিনি। দলনেতা কথা রেখে অনেকেই তাঁর সঙ্গে পথ চলেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!