এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুরভোটের প্রস্তুতি চূড়ান্ত,নবান্নের নির্দেশিকা সমস্ত পুরসভাতে

পুরভোটের প্রস্তুতি চূড়ান্ত,নবান্নের নির্দেশিকা সমস্ত পুরসভাতে

2021 এর বিধানসভা নির্বাচন হতে আর বেশি দেরি নেই। অন্যদিকে, এ বছরই এই রাজ্যের পুরভোট আর তারপরেই রাজ্যের মসনদ দখল করার লড়াই। রাজনৈতিক মহলের একাংশের দাবি, রাজ্যের অর্ধেক জায়গা জুড়েই হবে এবারের পুরসভা ভোট। আর তাতেই বিধানসভা ভোটের হাওয়া কিছুটা হলেও পরিলক্ষিত হবে। তাই ইতিমধ্যে আগামী দিনের রাজনৈতিক লড়াইয়ে রূপরেখা সাজাতে ব্যস্ত বিজেপি-তৃণমূল সহ রাজ্যের অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলি। অন্যদিকে, শাসকদল আগামীদিনের পুরভোটের কথা মাথায় নিয়ে এবার বিভিন্ন পুরসভার উদ্দেশ্যে নির্দেশিকা জারি করছে।

সূত্রের খবর, নবান্ন থেকে ইতিমধ্যে সমস্ত পুরসভায় নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে, যে আগামী 31 মার্চের মধ্যে যেসব পুরসভায় উন্নয়নের কাজ বাকি পড়ে রয়েছে সে কাজগুলি অতি অবশ্যই শেষ করতে হবে। এই নির্দেশিকা প্রদানের ব্যাপারটি সামনে আসার পরেই রাজনৈতিক মহলের দাবি, আগামী এপ্রিল-মে মাসের মধ্যেই সারা রাজ্য জুড়ে পুরসভার ভোটের দামামা বাজবে। অন্যদিকে, নবান্নের নির্দেশ অনুযায়ী বিভিন্ন পুরসভাগুলিকে বলা হয়েছে, 31 মার্চের মধ্যে বিভিন্ন প্রকল্প শেষের ইউটিলাইজেশন সার্টিফিকেট দিতে হবে।

শুধু তাই নয়, রাজ্যের নিজস্ব ওয়েবসাইটেও এ ব্যাপারে বিভিন্ন সূত্র দিয়ে, ছবি সহ আপলোড করতে হবে। ইতিমধ্যে, নবান্ন সূত্রে জানা গেছে গত বছর বিভিন্ন পুরসভায় 8 হাজার কোটি টাকা দেওয়ার কথা ছিল, যার মধ্যে 6 হাজার কোটি টাকা ইতিমধ্যে দেওয়া হয়েছে উন্নয়নকল্পে। তাই ভীষণভাবে জানা দরকার এই টাকার বদলে প্রকল্পগুলির ইউটিলাইজেশন সার্টিফিকেট হয়েছে কিনা। সূত্রের খবর, এই ইউটিলাইজেশন সার্টিফিকেট জমা দেওয়া হলে তবেই বাদবাকি 2000 কোটি টাকা পুরসভাগুলির উদ্দেশ‍্যে দেওয়া হবে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

ইতিমধ‍্যে বেশকিছু পুরসভার মেয়াদ শেষ হচ্ছে। প্রায় 92 টি পুরসভার মেয়াদ আগামী 31 মার্চের মধ‍্যে শেষ হচ্ছে। আর যেসব পুরসভার মেয়াদ শেষ হচ্ছে সেগুলি হল কলকাতা, শিলিগুড়ি এবং চন্দননগর পুরনিগম। তালিকায় রয়েছে দার্জিলিং-এ ১ টি, জলপাইগুড়ির ২টি, উচ্চর দিনাজপুরের ২ টি, দক্ষিণ দিনাজপুরের ১ টি, মালদার ২ টি, মুর্শিদাবাদের ৬ টি, নদিয়ায় ৯টি, উত্তর ২৪ পরগনায় ২৩ টি, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৫ টি, হাওড়ায় ১ টি, হুগলিতে ১২টি, পূর্ব মেদিনীপুরে ৩ টি, পশ্চিম মেদিনীপুরে ৬ টি, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, বীরভূম এবং পূর্ব বর্ধমানে যথাক্রমে ৩, ৩, ৪ এবং ৪ টি করে পুরসভা।

2020 তে রাজ্যজুড়ে বিভিন্ন পুরসভার নির্বাচনকে একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগের সেমিফাইনাল লড়াই বলেই ধরে নেওয়া হচ্ছে রাজনৈতিক মহল থেকে। আর তাই রাজ্যজুড়ে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে এই মুহূর্তে চূড়ান্ত ব্যস্ততা। অন্যদিকে, শাসকদলও রীতিমতো এই লড়াইয়ে টিকে থাকতে বিভিন্ন স্ট্র্যাটেজি আগে থেকেই নিয়েছে। সূত্রের খবর, এই পুরসভা লড়াইতে যাতে কোনো মতেই 2018 পঞ্চায়েত নির্বাচনের মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি না হয়, সে ব্যাপারে অতি সর্তকতা অবলম্বন করেছেন এ রাজ্যের ভোট কৌঁশলী প্রশান্ত কিশোর। তিনি বর্তমান তৃণমূল কাউন্সিলরদের সর্তকতা জ্ঞাপন করেছেন বলে জানা গেছে।

আপনার মতামত জানান -
Top