এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > আসছে পুরভোট – ‘নতুন মডেল’ নিয়ে বাজিমাত করতে তৈরী অনুব্রত মন্ডল

আসছে পুরভোট – ‘নতুন মডেল’ নিয়ে বাজিমাত করতে তৈরী অনুব্রত মন্ডল

কখনও গুড় বাতাসা খাওয়ানো তো কখনও চড়াম চড়াম ঢাক বাজিয়ে নির্বাচনের আগে বিরোধীদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগে বিভিন্ন সময়ে বিপর্যস্ত ছিলেন তৃনমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডল। কিন্তু মুখে যাই বলুন না কেন এই মানুষটি যে সর্বদা জনহিতেই কাজ করেন তা ফের ফুটে উঠল তাঁর নিজেরই কথায়। রাজ্যের বিভিন্ন জেলার পুর নির্বাচনে সংরক্ষিত ওয়ার্ডগুলিতে পুরনো কাউন্সিলরদের প্রার্থী করা নিয়ে যখন শাসকদলের বিভিন্ন জেলার জেলা সভৃপতিরা ব্যাস্ত, ঠিক তখনই এই ব্যাপারে কিছুটা ব্যাতিক্রমী বীরভূমের কেষ্ট ঠাকুর।

সূত্রের খবর, আসন্ন বীরভূম জেলার গুসকরা পৌরসভার পুর নির্বাচন উপলক্ষে সোমবার বিকেলে গুসকরায় আসেন অনুব্রত মন্ডল। জানা যায়, সেখানে দলীয় কার্যালয়ে বেশ কিছুক্ষন বৈঠকও করেন তিনি। এদিনের এই বৈঠকে অনুব্রত মন্ডল ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন আউশগ্রামের বিধায়ক অভেদানন্দ থান্দার, গুসকরা শহর তৃনমূল সভাপতি কুশল মুখোপাধ্যায়, পুরসভার চেয়ারম্যান বুর্দ্ধেন্দু রায়, আউশগ্রাম 1 ব্লকের তৃনমূল সভাপতি শেখ সালেখ রহমান সহ অন্যান্যরা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এদিন এই বৈঠকের পরেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বীরভূম জেলা তৃনমূল সভাপতি অনুব্রত মন্ডল বলেন, “বোলপুরের নিয়ম অনুযায়ী  কোনোও কাউন্সিলরের ওয়ার্ড সংরক্ষিত হলে তিনি আর অন্য কোনো ওয়ার্ডে প্রার্থী হন না। তাই গুসকরাতেও সেই নিয়ম চলবে।” পাশাপাশি এদিন বিগত বোর্ডের কাজের প্রশংসাও করেন তিনি। তবে অঃবার এই গুসকরা পুরভোটে দলের টিকিট দেওয়া নিয়ে অত্যন্ত সাবধানী বীরভূমের “কেষ্ট”। তিনি বলেন, “কোনোও দুর্নীতিগ্রস্তকে আমরা প্রার্থী করব না। পঞ্চায়েতের টিকিট ব্লক সভাপতি তাই শহরের টিকিট শহর সভাপতি দেবেন। যদি সমস্যা হয় বিধায়ককে জানাবেন। আর তাও যদি সমস্যা হয় তাহলে আমি এসে প্রার্থী ঠিক করব।” সব মিলিয়ে এবার গুসকরা পুরভোটে বোলপুর মডেলেই অনুব্রত মন্ডলের।

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!