এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পাবলিক সার্ভিস কমিশন পরিচালিত একাধিক পরীক্ষায় দুর্নীতির অভিযোগ তুলে আন্দোলনে নামলো চাকরিপ্রার্থীরা

পাবলিক সার্ভিস কমিশন পরিচালিত একাধিক পরীক্ষায় দুর্নীতির অভিযোগ তুলে আন্দোলনে নামলো চাকরিপ্রার্থীরা

Priyo Bandhu Media

সম্প্রতি পিএসসি পরিচালিত WBCS পরীক্ষার মতো গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষায় কারচুপির অভিযোগ উঠেছে। WBCS- ২০১৭ পরীক্ষায় সাদা খাতা জমা দেওয়া প্রশান্ত বর্মনকেই দেখা গেল পরীক্ষার ফলাফলে প্রথম স্থান অধিকার করতে। এটা প্রকাশ্যে আসার পরই চোখ কপালে ওঠে চাকরিপ্রার্থী সহ আমজনতার। রাস্তায় পথে নেমে বিক্ষোভ করে পরীক্ষার্থীরা। প্রতিবাদে পাব্লিক সার্ভিস কমিশনের অফিসের সামনে গিয়েও ধর্না দেয় তাঁরা। স্যোশাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড় উঠে যায়। সঙ্গে সমান তালে প্রশান্ত বর্মন এবং পিএসসির নাম করে চলতে থাকল ব্যাঙ্গ-বিদ্রুপ। বিক্ষুব্ধ পরীক্ষার্থীরা আইনের পথেও হেঁটেছনে এই দুর্নীতির বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে। তবে তাঁদের শুধু WBCS নয়,সম্প্রতি পিএসসির একাধিক পরীক্ষাই দুর্নীতির শিকার। এমনটাই অভিযোগ তুলে প্রতিবাদ করতে পিএসসির চেয়ারম্যানের পদত্যাগের দাবীতে সরব হয়েছে হাজার হাজার চাকরিপ্রার্থীরা।

প্রসঙ্গত, WBCS- ২০১৭ এর পরীক্ষার্থী এই প্রশান্ত বর্মনের নম্বর রাতারাতি পরিবর্তন হল কীভাবে তা নিয়ে হাইকোর্টে মামলাও দায়ের করেছে বিক্ষুব্ধ পরিক্ষার্থীরা। বর্তমানে সেই মামলা বিচারাধীন অবস্থায় রয়েছে। আর বিচারপ্রক্রিয়া শেষ হওয়ার আগেই এদিন দুপুর ১২ টা নাগাদ পিএসসির অফিসের বাইরে চেয়ারম্যানের পদত্যাগের দাবী তুলে জমায়েত হন চাকরিপ্রার্থীরা। সেখানেই DYFI এর নেতৃত্বে অবস্থান বিক্ষোভ করেন তাঁরা। তাঁদের বক্তব্য,পিএসসি-র অন্দরের চূড়ান্ত অস্বচ্ছতা রয়েছে। যা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে পরীক্ষার্থীদের মধ্যে। তাই এদিনের বিক্ষোভ জানিয়ে তাঁরা দাবী করে- অভিযুক্ত প্রার্থী প্রশান্ত বর্মনের নাম WBCS’র চূড়ান্ত তালিকায় প্রথম স্থানে কীভাবে থাকল তার জবাব পিএসসিকে দিতে হবে। যে ফায়ার অপারেটর পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল সেটা বাতিল করে আবার পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। এছাড়া হাইকোর্টের পিএসসি মামলার রায় না বেরোনো অব্দি নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত রাখারও দাবী করা করা হয়েছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এ প্রসঙ্গে DYFI-র ইন্দ্রজিৎ ঘোষ জানান, সম্প্রতি রাজ্যের পাব্লিক সার্ভিস কমিশন থেকই প্রচুর প্রশ্নপত্র ফাঁস হচ্ছে। এর জন্য স্বাভাবিকভাবে কমিশনের উপর থেকে আস্থা হারাচ্ছেন সাধারণ ছাত্রছাত্রীরা। দীর্ঘদিন ধরে কঠোর পরিশ্রমের পর সফলতা হাতে আসে। পিএসসির এভাবে পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে অন্যায় করার অধিকার নেই কোনো।তাছাড়াও PSC’র চেয়ারম্যান যিনি রয়েছেন তিনি IAS অফিসার নন। তিনি চেয়ারম্যান আছেন সরকারের মদতপুষ্ট হিসাবে। তাকে অবিলম্বে এই জায়গা থেকে সরাতে হবে। আপাতত পরীক্ষার্থী এবং আইনের চাপের মুখে পড়ে কোনঠাসা অবস্থা রাজ্যের পাব্লিক সার্ভিস কমিশনের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!