এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ন্যায্য বেতনের দাবিতে ফের আগামীকাল পথে নামছেন প্রাথমিক শিক্ষকরা, জেনে নিন বিস্তারিত

ন্যায্য বেতনের দাবিতে ফের আগামীকাল পথে নামছেন প্রাথমিক শিক্ষকরা, জেনে নিন বিস্তারিত

প্রাথমিক শিক্ষকদের সংগঠন উস্থি ইউনাইটেড প্রাইমারি টিচার্স অ্যান্ড ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন বা ইউইউপিটিডব্লুএর নেতৃত্ত্বে রাজ্যের লক্ষ লক্ষ প্রাথমিক শিক্ষকদের পিআরটি স্কেলের দাবিতে আগামী ২৩শে নভেম্বর দুপুর ১.৩০ টায় সুবোধ মল্লিক স্কোয়ারে জমায়েত হবেন প্রাথমিক শিক্ষকরা।

শুধু তাই নয় জানা যাচ্ছে সেখান থেকে দুপুর ২.০০ নাগাদ মিছিল করে কলকাতা প্রেস ক্লাবে যাবেন প্রাথমিক শিক্ষকরা।অন্যদিকে তাঁরা জানাচ্ছেন যে এই মিছিলের জন্য যাতে সাধারণ মানুষের কোনো অসুবিধা না হয় তার ব্যাবস্থা করবেন তাঁরা। ambulance এবং রোগীর গাড়ির যাতে কোন অসুবিধা না হয় সে দিকেও লোকও দেবেন তাঁরা।

জানা যাচ্ছে এই পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচিতে এদিন প্রেস ক্লাবে সম্বর্ধনা দেওয়া হবে ১১২ জন শিক্ষক শিক্ষিকাদের যারা ৩০শে অক্টোবর শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ দেখানোর সময়ে পুলিশের হাতে নিগৃহীত হয়ে লালবাজারে লক আপে ছিলেন। এছাড়া বিকেল ৩টা থেকে আমাদের সাংবাদিক সম্মেলন আরম্ভ হবে | সেই সময়ে প্রাথমিক শিক্ষকদের ধর্না, অবস্থানের সময়ে শিক্ষামন্ত্রীর শিক্ষকদের প্রতি উক্তির প্রতিবাদ জানানো হবে এবং আমাদের ন্যায্য বেতনের দাবির পক্ষে প্রমাণিত কাগজপত্র সাংবাদিকদের দেখানো হবে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

 

এদিন এই নিয়ে প্রিয়বন্ধু মিডিয়ার তরফ থেকে সংগঠনের অন্যতম নেতা মইদুল ইসলাম জানান যে, আমরা রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষকরা যে বঞ্চনার শিকার তাতে আমাদের বর্তমান অর্থনৈতিক অবস্থা বড়োই শোচনীয়। কিন্তু রাজ্য সরকারের সেদিকে কোনো চিন্তা নেই। তাই এই আন্দোলনে নামতে বাধ্য হয়েছি। পাশাপাশি তিনি জানান যে, আমরা আশা রাখি ,আমাদের প্রতিটি সদস্য প্রতিবারের মত এবারও সুশৃঙ্খল ভাবে অনুষ্ঠানে যোগদান করবেন এবং অন্যকেও সাহায্য করবেন। মনে রাখবেন, আমরা শিক্ষক, আমাদের আচরণও যেন শিক্ষকসুলভ হয়।

এদিন কিভাবে শিক্ষকরা আসবেন সে নিয়েও জানান, সুবোধ মল্লিক স্কোয়ার যারা শিয়ালদহ স্টেশন হয়ে আসবেন তারা হেঁটে চলে আসবেন। যারা হাওড়া স্টেশন থেকে আসবেন তারা ধর্মতলায় হয়ে মৌলালিগামি যে কোন বাসে ওয়েলিংটন নেমে যাবেন।

সংগঠনের অন্যতম আর এক নেতা শাশ্বত ঘোষ জানান যে, শিক্ষামন্ত্রীর সাথে বহুদিন ধরে দেখা করার চেষ্টা করে এসেছি আমরা সময় দেননি। এখন রাজনৈতিক ও অরাজনৈতিক চাপে পরে গত ১৯ তারিখ উনি সময় দেন আমাদের এবং আমাদের দাবীগুলি পর্যালোচনা করে ভেবে দেখার আশ্বাস দেন। তবে মৌখিক আশ্বাসেই আমরা থেমে থাকছি না। সর্বভারতীয় বেতন কাঠামো চালু না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন আরো বৃহত্তর করার চিন্তাভাবনা করছি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!