এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > বিজেপি প্রার্থীকে ‘রক্ষায়’ আদিবাসীদের লাঠি-ঝাঁটা নিয়ে প্রতিরোধ, ‘ভয়ে’ পালাল বাইকবাহিনী

বিজেপি প্রার্থীকে ‘রক্ষায়’ আদিবাসীদের লাঠি-ঝাঁটা নিয়ে প্রতিরোধ, ‘ভয়ে’ পালাল বাইকবাহিনী

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার তপন ব্লকের আদিবাসী গ্রাম মাহানাজের অধিবাসী সুষমা কাছুয়া আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনের বিজেপি মনোনীত প্রার্থী হয়েছেন। অভিযোগ উঠেছে বৃহস্পতিবার রাতে সাত-আটটি বাইকে চেপে মুখে কাপড় বাঁধা অবস্থায় বেশ কয়েকজন তাঁর বাড়িতে এসে হাজির হয়। এরপরে ঐ অজ্ঞাত ব্যক্তিরা বিজেপি মনোনীত প্রার্থী সুষমা কাছুয়াকে মনোনয়নপত্র তুলে নেওয়ার জন্য ভয় দেখাতে শুরু করে। এমনকি ‘দেখে নেব’ বলে শাসানিসূচক বাক্যও ব্যবহার করে জনৈক দুষ্কৃতিরা। সুষমা কাছুয়ার বয়ান অনুযায়ী জনৈক দুষ্কৃতিরা নিজেদের তৃণমূলের লোক বলে পরিচয় দেয়। সুযোগ মতন সুষমা দেবীর পরিবারের লোকেরা চিত্‍কার চেঁচামেচি শুরু করলে আদিবাসী মহিলা ও পুরুষরা হাতে ঝাঁটা ও লাঠি নিয়ে তেড়ে আসেন। বেগতিক বুঝে সেখান পালিয়ে যায় বাইকবাহিনী। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক উত্তজনার সৃষ্টি হয়।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

খবর পেয়ে ঐ রাতেই নিকটবর্তী রামপুর ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। এই প্রসঙ্গে বিজেপির জেলা সভাপতি শুভেন্দু সরকার বললেন, নির্বাচন ঘোষণার প্রথম দিন থেকেই তৃণমূলের লোকেরা তাঁদের কর্মীসমর্থকদের নানা ভাবে হুমকি ও ভীতি প্রদর্শন করছে। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে তপনের মাহানাজ গ্রামে তাঁদের প্রার্থী আদিবাসী এক মহিলাকে তৃণমূলের গুন্ডারা ভীতিপ্রদর্শন করতে বাড়িতে চড়াও হয়েছিল। এলাকারই মানুষই তাদের ধাওয়া করে গ্রাম ছাড়া করেছেন। অন্যদিকে তপনের বিধায়ক তথা মন্ত্রী বাচ্চু হাঁসদা বিরোধী দলের আনা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে বললেন, বিরোধীরা জেলার প্রতিটি আসনেই নির্বিঘ্নে তাদের মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারছেন। হুমকি, মনোনয়ন প্রত্যাহারের জন্য ভীতিপ্রদর্শনের অভিযোগ একেবারেই মিথ্যে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!