এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > রাজনীতির ময়দানে পা দিয়েই নরেন্দ্র মোদীর মহা-চ্যালেঞ্জার হওয়ার মহা-পরিকল্পনায় প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

রাজনীতির ময়দানে পা দিয়েই নরেন্দ্র মোদীর মহা-চ্যালেঞ্জার হওয়ার মহা-পরিকল্পনায় প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে এতদিন মূল আলোচ্য বিষয় ছিল মায়াবতী ও অখিলেশ যাদবের জোট। বিজেপিকে হারিয়ে এই জোট কতগুলি আসন জিতবে বা জাতীয় রাজনীতির মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারবে কিনা তাই ছিল মূল আলোচ্য বিষয়। কিন্তু, গতকাল সোনিয়া গান্ধীর এক ঘোষণাতেই পুরোপুরি বদলে গেল সব সমীকরণ। গতকালই কংগ্রেসের তরফে ঘোষণা করা হয় – এবার সক্রিয় রাজনীতিতে সরাসরি পা রাখতে চলেছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

কিন্তু, তিনি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন কিনা তা নিয়ে এখনো খোলসা করা হয় নি। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছিল, সোনিয়া গান্ধী যেহেতু শারীরিক ভাবে প্রচন্ড অসুস্থ এবং প্রায়শই তাঁকে চিকিৎসার জন্য আমেরিকাতে থাকতে হয়, তাই হয়ত তিনি আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের ধকল নিতে পারবেন না। সেক্ষত্রে রায়বেরিলি থেকে প্রার্থী হতে পারেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। কিন্তু, বর্তমানে কংগ্রেসের অসমর্থিত সূত্রে জানা যাচ্ছে, রায়বেরিলি নয় সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর চ্যালেঞ্জার হিসাবে বারাণসীতে লড়তে পারেন তিনি।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এক্ষেত্রে, দ্বিমুখী সুবিধা পেতে পারে কংগ্রেস – যেখানে হারানোর কিছু নেই। প্রথমত, যদি প্রিয়াঙ্কা গান্ধী জিতে যান তাহলে তাঁর রাজনৈতিক কেরিয়ার পৌঁছে যাবে চরম সীমায় – কেননা প্রধামন্ত্রীকে হারিয়ে একেবারে ‘জায়েন্ট কিলারের’ তকমা পেয়ে যাবেন। আর হেরে গেলেও, ‘ভালো খেলিয়া পরাজিতর’ তকমা – যা হেভিওয়েট প্রার্থীর বিরুদ্ধে যথেষ্ট সম্মানজনক। অর্থাৎ, কংগ্রেসের হারাবার কিছুই নেই – উল্টে ফল ভালো হলে পাওয়ার অনেক কিছুই আছে। আর তাই, নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে নামানোর তোড়জোড় শুরু হয়েছে জোর কদমে।

কংগ্রেসের এই পরিকল্পনা মনে ধরেছে উত্তরপ্রদেশের ‘বুয়া-ভাতিজা’ জোটেরও। প্রাথমিকভাবে উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেসের জন্য আমেঠি ও রায়বেরিলি আসন দুটি ছেড়ে রেখেছিল সপা-বসপা জোট। আর বারাণসীতে জোট সমর্থিত নির্দল প্রার্থী হিসাবে ভাবা হচ্ছিল হার্দিক প্যাটেলকে। কিন্তু, প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর নাম ভেসে উঠতেই, বিরোধী জোট ভাগ না হওয়ার জন্য এই আসনটিও কংগ্রেসকে ছাড়া নিয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু করে দিয়েছেন জোটের নেতারা। সবমিলিয়ে, রাজনীতির ময়দানে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে নামিয়েই একাধিক দিকে বাজিমাতের চেষ্টায় কংগ্রেস।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!