এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বর্ধমান > টাকা নিয়ে শিক্ষক নিয়োগের নামে দুর্নীতি – অভিযুক্তকে গণধোলাই – জেনে নিন বিস্তারিত

টাকা নিয়ে শিক্ষক নিয়োগের নামে দুর্নীতি – অভিযুক্তকে গণধোলাই – জেনে নিন বিস্তারিত

রাজ্যে যখন টেট পরীক্ষা নিয়ে পরিস্থিতি সরগরম ঠিক তখনই শোনা গেল নতুন বিতর্ক। বর্ধমানে প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষকের চাকরি দেওয়ার নাম করে লক্ষাধিক টাকা প্রতারণা অভিযোগ উঠল। এদিন জেলাশাসকের কার্যালয় চত্বরে অভিযুক্তকে গণধোলাই দিলেন প্রতারিতরা। পুলিশ অভিযুক্তকে আটক করেছে। শহরাঞ্চলে বেসরকারী ক্ষেত্রে সুযোগ সুবিধা থাকলেও গ্রামাঞ্চলে বেকার যুবক-যুবতীদের কাছে সরকারী চাকরী যথেষ্ট লোভনীয় পেশা।

এইরকমই বেশ কিছু বেকার যুবক যুবতী চাকরী প্রার্থী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতার সুযোগ পাবে জেনে এক যুবকের ফাঁদে পা দেয়। ঐ প্রতারক যুবকের চাহিদা মতো তারা দাবি অনুসারে অর্থও তার হাতে তুলে দেয়। পূর্ব প্রতিশ্রুতি মতন টাকা নেওয়ার পরে ঐ যুবক পরিবর্তে চাকরিপ্রার্থীদের হাতে নিয়োগপত্রও তুলে দেয়। এরপরে সমস্যা শুরু হয় যখন ঐ নিয়োগপত্র নিয়ে চাকরীপ্রার্থীরা প্রস্তাবিত বিদ্যালয়ে শিক্ষক পদে যোগদান করতে যান। সেখানে গিয়ে চাকরী প্রার্থীরা জানতে পারেন যে নিয়োগপত্রটি জাল। এরপরে প্রতারিত্রা অভিযুক্তকে ধরতে ফাঁদ পাতেন। আরও কিছু চাকরীপ্রার্থীরা প্রাথমিক শিক্ষকের পদে কাজ করতে আগ্রহী জানিয়ে তাঁকে বর্ধমান শহরে তলব করা হয়।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

মঙ্গলবার সকালে ঐ প্রতারক যখন জেলাশাসকের কার্যালয়ের সামনে এসে উপস্থিত হন তখনই কর্মপ্রার্থীরা তার ওপরে ক্ষোভে ফেটে পড়েন। প্রকাশ্য রাজপথে জনসমক্ষে ব্যাপক মারধর করা হয়। শেষে প্রতারক টাকা ফিরিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত যুবকের নাম দীপঙ্কর বেজ। নিবাস বাঁকুড়ায়। এদিন তাঁর কথাবার্তায় অসংলগ্নতা লক্ষ্য করা যায়। সমস্ত ঘটনা প্রসঙ্গে বর্ধমান জেলা পুলিশের এক আধিকারিক জানালেন প্রতারিতরা যদি নিয়মমাফিক অভিযোগ দায়ের করেন তাহলে ঐ প্রারক যুবকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করা সহজ হবে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!