এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > লোকসভার আগে প্রধানমন্ত্রীকে বড় ধাক্কা দিয়ে ৪৩ বছরের পুরোনো ‘বন্ধুর’ ‘চায়েওয়ালা’ ভাবমূর্তি নিয়ে বিস্ফোরক দাবি

লোকসভার আগে প্রধানমন্ত্রীকে বড় ধাক্কা দিয়ে ৪৩ বছরের পুরোনো ‘বন্ধুর’ ‘চায়েওয়ালা’ ভাবমূর্তি নিয়ে বিস্ফোরক দাবি

২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে থেকেই নিজেকে ‘চায়েওয়ালা’ হিসাবে দেশবাসীর সামনে তুলে ধরেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী স্বয়ং। কংগ্রেসকে দেশ থেকে মুছে দিতে ‘পরিবারতন্ত্রের’ বিরুদ্ধে এক ‘চায়েওয়ালার’ লড়াইকে সবার সামনে এনেছে গেরুয়া শিবির। আর আমজনতার কাছে তা যে অত্যন্ত গ্রহণযোগ্য হয়েছে – তা বিজেপির আকাশচুম্বী সাফল্যেই প্রমাণিত।

কিন্তু, ঠিক তার পাঁচ বছর বাদে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগেই বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নরেন্দ্র মোদির ‘চায়েওয়ালা’ ভাবমূর্তিতে বড়সড় ধাক্কা খেতে চলেছে! একদা তাঁর অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ ‘বন্ধু’ হিসাবে পরিচিত বিশ্ব হিন্দু পরিষদের প্রাক্তন সভাপতি প্রবীণ তোগাড়িয়া সামনে নিয়ে এলেন এক বিস্ফোরক অভিযোগ! তাঁর দাবি – তাঁর ও নরেন্দ্র মোদির ‘বন্ধুত্ব’ প্রায় ৪৩ বছরের – কিন্তু এই দীর্ঘ সময়ে কখনোই তিনি চা বিক্রি করতে দেখেননি!

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

ইতিমধ্যেই কংগ্রেস, তৃণমূল কংগ্রেস সহ বিরোধীরা বিজেপি সরকারকে ‘জুমলা সরকার’ বলে আখ্যা দিতে শুরু করেছে। বিরোধীদের দাবি, নরেন্দ্র মোদির সরকার মুখে যা বলে কাজে নাকি তা করে না। আর তার সবথেকে বড় প্রমান – ২০১৪ এর নির্বাচনের আগে কালো টাকা উদ্ধার করে সকলের অ্যাকাউন্টে ১৫ লক্ষ করে টাকা দেওয়ার দাবি, যা আজ পর্যন্ত কেউ পান নি। মোদী সরকারের বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ, তিনি নাকি তাঁর ঘনিষ্ঠ ব্যবসায়ীদের সুবিধা পাইয়ে দেন – সাধারণ মানুষের কথা ভাবেন না।

এই পরিস্থিতিতে প্রবীণ তোগাড়িয়ার এই নতুন বিস্ফোরক অভিযোগ বিরোধীদের হাতে নতুন অস্ত্র তুলে দিল তা বলাই বাহুল্য। যদিও, নরেন্দ্র মোদী ও তাঁর বন্ধুত্ব এখন তলানিতে। এমনকি বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সভাপতির পদও খুইয়েছেন রাম মন্দির আন্দোলনের অন্যতম পুরোধা প্রবীণ তোগাড়িয়া। আর তারপর থেকেই একাধিক ইস্যুতে নরেন্দ্র মোদিকে কোনঠাসা করার চেষ্টা চালিয়ে গেছেন তিনি। আর তাই তাঁর এই অভিযোগ বিজেপির কাছে কতটা মান্যতা পাবে সেটাই এখন দেখার।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!