এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > প্রশান্ত কিশোর ও তৃণমূলকে নিয়ে বিস্ফোরক সব্যসাচী, দাগলেন তোপ

প্রশান্ত কিশোর ও তৃণমূলকে নিয়ে বিস্ফোরক সব্যসাচী, দাগলেন তোপ

বর্তমানে বিধাননগরের মেয়র তথা রাজারহাট নিউটাউনের তৃণমূল বিধায়ক সব্যসাচী দত্তকে নিয়ে বঙ্গ রাজনীতিতে ঝড় উঠতে শুরু করেছে। তিনি তৃণমূলের, নাকি বিজেপির! তা নিয়ে দড়িটানাটানি শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলের অন্দরমহলেও। যার প্রথম এবং প্রধান কারণ হিসেবে তৃণমূলে থেকেও দলবিরোধী একের পর এক মন্তব্য। যাকে কেন্দ্র করে এখন তীব্র বিতর্ক শুরু হয়েছে বাংলায়। আর এই পরিস্থিতিতে এবার ফের দলবিরোধী মন্তব্য করে খবরের শিরোনামে উঠে আসলেন সেই সব্যসাচী দত্ত।

বস্তুত, লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভরাডুবির পর দলকে ঘুরে দাঁড় করানোর জন্য ভোটগুরু হিসেবে প্রশান্ত কিশোরকে নিয়োগ করেছে ঘাসফুল শিবির। এদিন তার ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে দেখা যায় তৃণমূল বিধায়ক তথা বিধাননগর পৌরসভার মেয়র সব্যসাচী দত্তকে।

সূত্রের খবর, এদিন এই প্রসঙ্গে তৃণমূল বিধায়ক বলেন, “প্রশান্ত কিশোর দলের পরামর্শদাতা হিসেবে টাকা পাচ্ছেন। কেউ বলছেন 400 কোটি, কেউ বলছেন 500 কোটি। তাহলে এত টাকা দলের কাছে আছে। কিন্তু দলকে যে প্রশান্ত কিশোর পরামর্শ দিতে আসছেন, তিনি তো পাবলিকের টাকার বিনিময়েই পরামর্শ দিচ্ছেন। রাজ্য সরকার তো তাকে টাকা দিতে পারে না। কিন্তু আমি পার্টি সদস্য হয়েও জানিনা যে এত টাকা ঠিক কোথা থেকে আসছে।”

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

পাশাপাশি তিনি বিস্ফোরক মন্তব্য করেন যে প্রশান্ত কিশোর অর্থের বিনিময়ে মমতা ব্যানার্জীকে যা পরামর্শ দিচ্ছে মুকুলদা বিনাপয়সায় আমাকে সেই এক এ ধরনের পরামর্শ দিচ্ছে। সব্যসাচীর এই আর মন্তব্যের পর তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। কেননা এর আগে তৃণমূল ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য প্রশান্ত কিশোরকে নিয়োগ করলে কোটি কোটি টাকা দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাকে নিয়োগ করেছেন বলে তৃণমূলের বিরুদ্ধে তোপ দাগতে দেখা গিয়েছিল বিজেপিকে। আর এবার সেই বিজেপির পথে হেটে একজন তৃণমূল বিধায়ক হিসেবে দলের ব্যাপারে সব্যসাচী দত্তের সন্দেহপ্রকাশ অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।

অনেকে বলছেন, ইচ্ছে করেই দলের বিরুদ্ধে এই ধরনের মন্তব্য করেছেন সব্যসাচী দত্ত। তাইতো নেত্রীর অত্যন্ত আস্থাভাজন দলের ভোটগুরু হিসেবে পরিচিত প্রশান্ত কিশোরের বিরুদ্ধে মুখ খুলে তাকে টাকা দেওয়ার জন্য দলের এত অর্থ কোথা থেকে আসছে, সেই ব্যাপারে পরোক্ষে প্রশ্ন তুলে দিলেন তিনি। যা বিরোধীদের বাড়তি অক্সিজেন দিল বলেই মত ওয়াকিবহাল মহলের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!