এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > পুলিশের খাতায় ফেরার অভিযুক্ত জেলাশাসকের সরকারি অনুষ্ঠানে, পাহারায় পুলিশ

পুলিশের খাতায় ফেরার অভিযুক্ত জেলাশাসকের সরকারি অনুষ্ঠানে, পাহারায় পুলিশ

কথায় আছে, চোর-পুলিশে এক ঘাটে জল খায়। হ্যাঁ, অপ্রিয় সত্য হলেও এখন এটাই সত্যি। সন্দেশখালি কাণ্ডে অন্যতম অভিযুক্ত বাবু মাস্টার ফেরার বলে জানা গেলেও সোমবার সরকারি অনুষ্ঠানে জেলাশাসকের পাশে বসে বহাল তবিয়তে থাকতে দেখা গেল তাকে।

শুধু তাই নয়, অনুষ্ঠান শেষে পুলিশি নিরাপত্তাতে বিদায় নিতেও দেখা যায় তাকে। আর এই ঘটনাতেই এবার রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে ফের উঠতে শুরু করল প্রশ্ন। প্রসঙ্গত, সম্প্রতি লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর বসিরহাটের সন্দেশখালির ন্যাজাট এলাকায় দুই বিজেপি কর্মী ও এক তৃনমূল কর্মী খুনের ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে রাজ্য রাজনীতিতে।

আর যে ঘটনায় অভিযুক্ত হিসেবে দাপুটে তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহান এবং বাবু মাস্টারের নাম এফআইআরে দেখতে পাওয়া যায়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত পুলিশ তাদের গ্রেফতার না করায় বরাবরই সেই অভিযুক্তদের ফেরার হিসেবে দেখাতে শুরু করে। কিন্তু এবার সেই ফেরার বাবু মাস্টারকে সরকারি অনুষ্ঠানে দেখতে পাওয়ায় তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হল।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

 

জানা যায়, সোমবার উত্তর 24 পরগনা জেলা পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানে মঞ্চ আলো করে বসেছিলে সেখানকার শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ বাবু মাস্টার। এমনকি এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলাশাসক চৈতালি চক্রবর্তীও। আর একই মঞ্চে অভিযুক্ত বাবু মাস্টার এবং জেলা প্রশাসনের শীর্ষ কর্তারা থাকায় বিরোধীদের তরফে নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

তাদের দাবি, আসলে পুলিশ প্রশাসন তৃণমূলের দলদাস হয়ে গিয়েছে। আর তাইতো অভিযুক্তকে ফেরার হিসেবে দেখিয়েও জেলা শাসকের সাথে সেই অভিযুক্ত একই মঞ্চে থাকলেও তাকে পুলিশ গ্রেফতারের সাহস দেখাচ্ছে না। যদিও বা এই প্রসঙ্গে বাবু মাষ্টার বলেন, “আমি সন্দেশখালির ওই ঘটনার সঙ্গে জড়িত নই। আমি যেখানে থাকি সেখান থেকে অনেক দূরে এই ঘটনা ঘটেছে। কাজেই সমস্তটাই ভিত্তিহীন অভিযোগ।”

তাহলে কি সত্যিই সেই মৃতের পরিবার বিচার পাবে না! এইভাবে একই সরকারি মঞ্চে ফেরার দেখানো অভিযুক্ত বসে থাকলেও তাকে গ্রেফতারের সাহস দেখাতে পারবে না পুলিশ! অনেকে বলছেন, তৃণমূল ও পুলিশের মধ্যে এখন কোনো পার্থক্য নেই। আর তাই এইরকম অবস্থা। তবে সকলেই অবশ্য দেখতে চাইছেন, ঠিক কবে সন্দেশখালির এই ঘটনায় সকলে বিচার পান! পুলিশ নিজের উর্দির সম্মান বজায় রেখে কবে এই বাবু মাস্টারের মত অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করে, এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!