এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুলিশকে শাড়ি পরাতে চেয়ে ও গুন্ডা বলে তীব্র বিতর্ক বাড়ালেন হেভিওয়েট বিধায়ক

পুলিশকে শাড়ি পরাতে চেয়ে ও গুন্ডা বলে তীব্র বিতর্ক বাড়ালেন হেভিওয়েট বিধায়ক

সে অনেকদিন আগেকার কথা। রাজ্যে তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পর বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল প্রকাশ্য জনসভায় পুলিশের বিরুদ্ধে বোম মারার কথা বলে তীব্র বিতর্কে জড়িয়েছিলেন। বাম বিজেপি এবং কংগ্রেস শাসকদলের জেলা সভাপতি এহেন মন্তব্যে প্রায় প্রত্যেকেই তীব্র সমালোচনায় সরব হয়েছিল।

কিন্তু এবার সেই এককালের সমালোচকদের মুখেই শোনা গেল পুলিশের বিরুদ্ধে কুকথার রেওয়াজ। আইনকে রক্ষা করতেই যে পুলিশ সদা সতর্ক পাহারাদারের ভূমিকা পালন করছেন সেই পুলিশ প্রশাসনের বিরুদ্ধেই এবার নজিরবিহীন আক্রমণ শানালেন গোয়ালপুকুরের ফরওয়ার্ড ব্লক বিধায়ক আলি ইমরান রামজ।

সূত্রের খবর, গতকাল বিকেলে নলহাটির ডাকবাংলো মাঠে ফরওয়ার্ড ব্লকের 18 তম বীরভূম জেলা সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে বক্তব্য রাখতে উঠে ফরওয়ার্ড ব্লকের এই আলি ইমরান রামজ বলেন,”রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা প্রায় শেষের দিকে। থানায় ঢুকে প্রকাশ্যে তৃণমূলের নেতারা পুলিশকে পেটালেও কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না প্রশাসন। তাই পুলিশের উর্দি পরে যারা আছেন এদের শাড়ি পরিয়ে দেওয়া আর উর্দি পড়িয়ে দেওয়া দুইই সমান। পুলিশ আর গুন্ডা এখন সমার্থক হয়ে দাড়িয়েছে। তাই পুলিশের ওপর আর কেউ ভরসা করবেন না।”

একাংশের মতে, তর্কের খাতিরে না হয় ধরে নেওয়া গেল যে পুলিশের উপর চোটপাট দেখাচ্ছে শাসকদলের নেতারা। কিন্তু একজন জনপ্রতিনিধি হয়ে ফরওয়ার্ড ব্লকের বিধায়ক যেভাবে পুলিশের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন এবং প্রশাসনকে গুন্ডা বলে অভিহিত করলেন সেটা কি এই সমাজ খুব একটা ভালো চোখে নেবে? একজন জনপ্রতিনিধি হয়ে এইভাবে পুলিশের বিরুদ্ধে অপমানজনক মন্তব্য করে কি রেহাই পেয়ে যাবেন ফরোয়ার্ড ব্লকের বিধায়ক আলি ইমরান রামজ?

এদিন এ প্রসঙ্গে রামপুরহাট মহকুমার পুলিশ আধিকারিক অভিষেক রায় বলেন, “কোনো জনপ্রতিনিধি এ রকম দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্য করতে পারেন না। প্রকাশ্য জনসভায় পুলিশের বিরুদ্ধে এমন বিবৃতি দেওয়ার জন্য ওনার বিরুদ্ধে ঠিক কি আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা যায় সেটা আমরা দেখছি।” এদিকে এ দিনের ফরওয়ার্ড ব্লকের এই জেলা সম্মেলনে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধেও তোপ দাগেন অনেকে।

পেট্রোপণ্যের মূল্য বৃদ্ধিতে মধ্যবিত্তের যে নাভিশ্বাস উঠেছে সেই কথা উল্লেখ করার পাশাপাশি জাতীয় নাগরিক পুঞ্জির তালিকায় বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরব হলেও এই এনআরসি প্রয়োগের দাবিতে আগেভাগেই বারবার দাবি জানিয়েছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো এদিন তা বলে বিজেপি ও তৃণমূলকে প্রবল কটাক্ষ করেন ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য অক্ষয় ঠাকুর।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অন্যদিকে কেন্দ্রের সাম্প্রদায়িক বিজেপি এবং রাজ্যের তৃণমূল সরকারকে সরাতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে লড়াইয়ের আহ্বান জানান ফরওয়ার্ড ব্লকের বীরভূম জেলা সম্পাদক দীপক চট্টোপাধ্যায়। তবে এদিনের এই সমাবেশে সমস্ত রাজনৈতিক বক্তব্যকে ছাপিয়ে গেছে বিধায়ক আলি ইমরান রামজের পুলিশের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারিমূলক বক্তব্য। হঠাৎ এই ভাবে পুলিশের উদ্দেশ্যে দলীয় বিধায়ক কটুক্তি করায় প্রবল বিড়ম্বনায় দলের কর্মীরাও।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!