এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ভোটে জোট করে লড়ছে না বাম কংগ্রেস, কিন্তু এই কাজ করছেন জোট বেঁধেই

ভোটে জোট করে লড়ছে না বাম কংগ্রেস, কিন্তু এই কাজ করছেন জোট বেঁধেই

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের অনেক আগেই কমিশনের সাথে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলোর বৈঠকে বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনে বাংলায় শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের যেভাবে গণতন্ত্রকে প্রহসনে পরিণত হয়েছে সেই সম্বলিত কয়েকটি প্রমাণ নির্বাচন কমিশনের কাছে পেশ করে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে যাতে এই রকম পরিস্থিতি তৈরি না হয় তার জন্য নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে আরও জোরদার করার আবেদন করেছিল বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো।

আর সেইমত বিরোধীদের এই অভিযোগকে মান্যতা দিয়ে রাজ্যের নির্বাচনকে সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন করতে নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে জোরদার করার কথা শোনা গেছে নির্বাচন কমিশনের গলাতেও। কিন্তু এই নির্বাচনে ইতিমধ্যেই রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বিভিন্ন জায়গায় তাদের ওপর হামলা এবং আক্রমণ চালাচ্ছে বলে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়ে একযোগে অভিযোগ করল বাম এবং কংগ্রেস।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

সূত্রের খবর, জাতীয় নির্বাচন কমিশনে সিপিএম এবং সিপিআইয়ের পক্ষ থেকে অভিযোগ জানিয়ে বলা হয়েছে, বাংলায় বামপন্থীদের উপর লাগাতার হামলা এবং আক্রমণ চালাচ্ছে শাসক দল তৃণমূল। আর এদিক থেকে কোচবিহার এবং ডায়মন্ডহারবার আসনের পরিস্থিতি সব থেকে খারাপ বলে জানিয়েছে তারা। পাশাপাশি বিজেপির দখলে থাকা ত্রিপুরাতেও তাদের প্রার্থী শংকর প্রসাদ দত্তর ওপর হামলা চালানো হয়েছে বলেও এদিন গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে কমিশনে নালিশ জানিয়েছে সিপিএম।

এদিকে সিপিএমের পক্ষ থেকে যখন বাংলার শাসক দল তৃণমূলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ করা হচ্ছে, ঠিক তখনই সেই একই অভিযোগ করে পশ্চিমবঙ্গের দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাচনী আধিকারিক সুদীপ জৈনের সঙ্গে দেখা করল প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্ব। কংগ্রেসের দাবি, কেন্দ্রীয় বাহিনীকে বিভ্রান্ত করছেন স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন। ভোটের আগে বিহার এবং ঝাড়খন্ড থেকে প্রচুর অস্ত্র এই রাজ্যে ঢুকতে শুরু করেছে। আর তাই বাইরে থেকে যে সমস্ত অবজারভার আসবেন তারা যেন সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলেই সমস্ত সিদ্ধান্ত নেন।

এদিন নির্বাচন কমিশনের কাছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে প্রদেশ কংগ্রেসের প্রদীপ ভট্টাচার্য বলেন, “কমিশন আমাদের অভিযোগ খতিয়ে দেখে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।” সব মিলিয়ে এবার নির্বাচন এগিয়ে আসতেই রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের দুষ্কৃতীদের বাড়বাড়ন্ত নিয়ে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানাল বাম এবং কংগ্রেস।

Top
error: Content is protected !!