এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বিজেপি জিতছে ‘ইভিএমের’ জোরে, বুক বাজিয়ে জানিয়ে দিলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী

বিজেপি জিতছে ‘ইভিএমের’ জোরে, বুক বাজিয়ে জানিয়ে দিলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী

২০১৪ সালের পর দেশজুড়ে যেন বইছে মোদী-ঝড়, একের পর এক নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে মুখ করে নামছে গেরুয়া-শিবির আর তারপরেই তাদের বিজয়-কেতন ওড়া যে স্বাভাবিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছিল। আর তাই, হাল ফিলের প্রায় প্রতিটি নির্বাচনে পরাজয়ের পরে কার্যত একই ভঙ্গিতে বিরোধীরা ইভিএমে কারচুপির অভিযোগ আনে। এমনকি এই ঘটনার প্রতিকার চেয়ে তারা নির্বাচন কমিশনের কাছে আর্জিও জানায়। অবশ্য কমিশনের হ্যাকাথন প্রতিযোগিতায় কেউই হাজির হননি বা প্রমান প্রমান করতে পারেননি কিভাবে ইভিএম হ্যাক করে জিতছে মোদীর দল, কিন্তু তবুও বিজেপির বিরুদ্ধে এই অভিযোগ থেকে পিছিয়ে আসতে রাজি নয় বিরোধীরা। এমনকি বিজেপিকে ‘জব্দ’ করতে ইভিএম ছেড়ে ব্যালটের ভোটেও ফিরে যাওয়ার প্রস্তাব দিয়েছেন বিরোধীরা।

আর এবার বিরোধীদের এই ইভিএম অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সরব হলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। গতকাল কর্নাটকে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে বুক বাজিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানিয়ে দিলেন তাঁরা ইভিএমের জন্যই ভোটে জিতছেন। ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন সংক্ষেপে ইভিএম মানে কী? এই প্রশ্নের বিশ্লেষন করে প্রধানমন্ত্রী তাঁর নিজেস্ব কায়দায় বললেন, সত্যিই ইভিএমের জন্য নির্বাচনে জিতছি। ই মানে এনার্জি (উৎসাহ), ভি মানে ভ্যালু অ্যাডিশন (মানুষের সমর্থন) এবং এম মানে মোটিভেশন ফর প্রোগ্রেস (উন্নতির অনুপ্রেরণা)। এটাই ইভিএম। এছারাও তিনি দাবি করেন, ১৫ মে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে কর্ণাটকে সরকার গঠন করবে বিজেপি। ইতিমধ্যেই ওরা বলতে শুরু করে দিয়েছে, ইভিএম বিভ্রাট করছে মোদী। মোদী হারায়নি, ইভিএম হারিয়েছে। ওরা যে যুক্তিই দিক, পাঁচ বছরের পাপের জবাব দেবেন কর্ণাটকবাসী।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!