এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী হলে বাংলার নতুন মুখ্যমন্ত্রী কে ? জানালেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী হলে বাংলার নতুন মুখ্যমন্ত্রী কে ? জানালেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ

দেশ থেকে বিজেপিকে উৎখাত করতে উঠেপড়ে লেগেছে দেশের সমস্ত বিরোধী দলগুলি। পিছিয়ে নেই তৃণমূল ও। নেত্রী ইতিমধ্যেই বৃহত্তর জোটের ডাক দিয়েছেন। আর তাঁকে প্রধানমন্ত্রী পদে দেখতে চাইছে অনেক দলই। ফলে তৃণমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে যে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখতে চাইছেন তৃণমূলের নেতা কর্মীরা তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

বর্তমান প্রধানমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা নরেন্দ্র মোদী যদি বিজেপির প্রধানমন্ত্রী মুখ হন আগামী লোকসভা ভোটে তবে নিঃসন্দেহে বিজেপি বিরোধী মহাজোট যদি হয় তবে সেখানে প্রধানমন্ত্রী মুখ হিসাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে এগিয়ে আছেন তা আর নতুন করে বলার দরকার নেই। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে যদি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী হন তবে তাঁকে বাংলা ছেড়ে দিল্লিতে যেতে হবে আর তাই বাংলার মাসনাদের কি হবে? কে সামলাবে বাংলা ?

প্রশ্নের উত্তর পাওয়া গেলো এদিন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ ইদ্রিশ আলির কাছ থেকে। আজ ইদ্রিশ আলি শিলিগুড়িতে একটি সাংবাদিক বৈঠক করেন আর সেখানেই তিনি জানান যে দেশের জনপ্রিয় নেত্রী হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আমার দৃঢ় বিশ্বাস যে আগামী লোকসভা নির্বাচনের পর তিনি প্রধানমন্ত্রী হিবেন। আর বাংলায় মুখ্যমন্ত্রীর আসনে আসবেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।সাথেই জানালেন যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লি গেলে মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ার ফাঁকা থাকবে না। দেশের চাবিকাঠি থাকবে যেমন মমতার হাতে। ঠিক তেমনিই রাজ্যের চাবিকাঠি থাকবে যুবরাজের হাতে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এই নিয়েই আগেই রাজনৈতিকমহল আন্দাজ করেছিল যে মমতা বন্দোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী হলে খুব সম্ভবত বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হবেন তাঁর ভাইপো অভিষেক বন্দোপাধ্যায়। কিন্তু তাতে কি প্রবীণ নেতারা বা অন্য দলীয় নেতারা খুশি হবেন ? হয়তো বিদ্রোহ হতে পারে দলে.এদিন রাজনৈতিকমহলের সব আশঙ্কার জল্পনা কাটিয়ে ইদ্রিশ আলি জানালেন যে শুধু মাইনোরিটি ফোরামই নয়, দলীয় কর্মীরাও চাইছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লি গেলে যুবরাজ মুখ্যমন্ত্রী হোক। দলে অনেক সিনিয়র নেতা থাকলেও আমরা তাঁদের বিরুদ্ধে নই। কিন্তু সকলে চাই অভিষেক মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্বভার নিক। ফলে এখন শুধু অপেক্ষা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রধানমন্ত্রী হবার। যদিও এই নিয়ে বিজেপির কটাক্ষ আশায় আশায় বাঁচে চাষা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!