এখন পড়ছেন
হোম > আন্তর্জাতিক > প্রধানমন্ত্রীর বিদেশ সফর নিয়ে আরটিআইয়ের জেরে সামনে এল বিস্ফোরক তথ্য! পুরোটা জানলে চমকে যাবেন

প্রধানমন্ত্রীর বিদেশ সফর নিয়ে আরটিআইয়ের জেরে সামনে এল বিস্ফোরক তথ্য! পুরোটা জানলে চমকে যাবেন

বিজেপি সরকারকে অস্বস্তিতে ফেলে সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর বিদেশ সফরের খরচ নিয়ে প্রশ্নে সরব বিরোধীরা। এদিন রাজ্যসভার প্রশ্নোত্তর পর্বে এ সংক্রান্ত তথ্য চান কেরলের সিপিএম সাংসদ বিনয় বিশ্বম। কেন্দ্রের ক্ষমতায় আসার পর গত সাড়ে চার বছরে মোদি কতগুলো দেশ সফর করেছেন? কারা কারা ছিলেন মোদীর সফর সঙ্গী? কী কী চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়েছে এতোদিনে? এয়ার ইন্ডিয়াকে কত টাকা দিতে হয়েছে? এই সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য জানতে চান বিশ্বম।

বিনয় বিশ্বমের প্রশ্নের উত্তরে ভি কে সিংহ হিসাব দিয়ে জানিয়েছেন, ১৫ জুন, ২০১৪ থেকে ৩ ডিসেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে চার বছরের সময়কালের মধ্যে ৮৪টি দেশ সফর করেছেন মোদী। খরচ হয়েছে মোট খরচ হয়েছে ২১২১.৫৮ কোটি টাকা। কোন খাতে কত খরচ হয়েছে, তাও জানিয়েছেন বিদেশ প্রতিমন্ত্রী। জানান,এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি খরচ হয়েছে বিমান রক্ষণাবেক্ষণে, ১৫৮৩ কোটি ১৮ লক্ষ টাকা। এছাড়া চার্টার্ড বিমানের জন্য সরকারি কোষাগার থেকে গিয়েছে ৪২৯ কোটি ২৮ লক্ষ এবং নিরাপদ হটলাইনের জন্য খরচ হয়েছে ৯ কোটি ১২ লক্ষ টাকা। ২০১৪ থেকে ২০১৭ এই তিন বছরের খরচের হিসাবই দেওয়া হয়েছে এদিন।

প্রসঙ্গত,নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিয়েছিলেন ২০১৪ সালের ২৬ মে। উল্লেখ,প্রধানমন্ত্রীর বিদেশ সফর নিয়ে কম চর্চা হয়নি এতোদিনে। দফায় দফায় মোদির বিদেশ যাত্রা নিয়ে বিরোধীরা কটাক্ষ করতে ছাড়েননি। ‘এনআরআই'(প্রবাসী ভারতীয়) প্রধানমন্ত্রী বলেও বিরোধীরা বিদ্রুপ করেছে বহুবার। বিদেশ সফর খতম করে দেশে ফিরলেই ‘ভারত সফরে এলেন মোদি’-এরকম ট্যাগলাইন, মিম ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এ নিয়ে মোদি ট্রোলড্ হয়েছেন একাধিক বার।

উদাহরণ স্বরূপ বলা যায়,নভেম্বর,২০১৬ তে নোটবন্দির পর জাপান সফরে গিয়েছিলেন মোদি। সেটা নিয়ে ব্যাঙ্গ-বিদ্রুপের শিকার হতে হয়েছিল প্রধানমন্ত্রীকে। এছাড়া বিভিন্ন অধিবেশনে,সভায় বিরোধীরা প্রধানমন্ত্রীর এই বিদেশ সফরকে ইস্যু করে আক্রমণ শানিয়েছেন একাধিকবার। সেই একই ফর্মুলা মেনে ফের লোকসভা ভোটকে টার্গেট করেই বিদেশ সফরের খরচ নিয়ে মোদিকে কাঠগড়ায় দাঁড় করালো বিরোধীরা।

সংসদের শীতকালীন অধিবেশন চলছে এখন। ১৯’এর লোকসভা ভোটের আগে এটাই শেষ অধিবেশন। তাই রাফল ইস্যু,নোটবন্দি,কৃষকদের দুরবস্থা,মূল্যবৃদ্ধি,ক্রমবর্ধমান বেকারত্বের ইত্যাদি ইস্যুর পাশাপাশি মোদির বিদেশ সফরের খরচ নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিজেপি সরকারকে কোনঠাসা করার চেষ্টা করল বিরোধীরা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এমনিতেই সম্প্রতি পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ভোটের ফলাফল বিজেপির আত্মবিশ্বাসের গোঁড়ায় আঘাত করেছে। এই প্রেক্ষিতে দাঁড়িয়ে বিজেপির ভাবমূর্তি নষ্ট করতে আরো সক্রিয় হয়ে উঠেছে প্রতিপক্ষরা। তবে বিজেপি শিবিরের দাবী, ভারত যে আজ শক্তিশালী দেশ হিসাবে বিশ্বের দরবারের স্বীকৃতি পেয়েছে,এর নেপথ্যে মোদির বিদেশ সফরের যথেষ্ট অবদান রয়েছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!