এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > পুলিশের বেতন কেমন, পদোন্নতি কিভাবে হয় জানতে চেয়ে কমিশনের চিঠি নবান্নে, বাড়ছে জল্পনা

পুলিশের বেতন কেমন, পদোন্নতি কিভাবে হয় জানতে চেয়ে কমিশনের চিঠি নবান্নে, বাড়ছে জল্পনা

রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পরেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারি কর্মীদের বেতন বৃদ্ধির জন্য ষষ্ট বেতন কমিশন গঠন করেন। বাম জামানায় শেষ বেতন কমিশন গঠন করার পর মাত্র ছমাসের মধ্যে কাজ শেষ করে কর্মীদের বেতন দিয়ে দিলেও, বর্তমান বেতন কমিশনের মেয়াদ বাড়তে বাড়তে প্রায় তিন বছর হয়ে গেল বলে রাজ্য সরকারি কর্মীদের একাংশের অনুযোগ।

যাইহোক সেই কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে এই নভেম্বরে – তাছাড়া মুখ্যমন্ত্রী আগামী জানুয়ারী থেকে আরো ১৮% অতিরিক্ত ডিএ দেওয়ার ঘোষণা করেছেন আর তার সঙ্গে বর্তমানে দেওয়া ১০% ইন্টিরিম রিলিফ মার্জ করে দেওয়া হবে যা আদতে ৭% ডিএর সমান বলে মুখ্যমন্ত্রীর দাবি। ফলে সবমিলিয়ে ডিএ বেড়ে ১২৫% হচ্ছে, ফলে এবার নতুন বেতন কমিশন অনুযায়ী বেতন করতেই হবে বলে সরকারি কর্মচারীদের দাবি।

আর তাই সেই বেতন কমিশন ইতিমধ্যেই বিভিন্ন দপ্তরের কর্মী থেকে বেতন কাঠামোর ওপরে নজড় দিতে শুরু করেছে। এখানেই শেষ নয়, সম্প্রতি বিভিন্ন সংগঠনের কাছ থেকে নানা পরামর্শ নিলেও সেখানে কেবল বাদ ছিল পুলিশদের সংগঠন। তাই এবার সেই পুলিশ সংগঠনের পক্ষ থেকেও একটি প্রস্তাব জমা পড়ল রাজ্যের এই ষষ্ট বেতন কমিশনের কাছে।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সূত্রের খবর, সংগঠনের তরফে কনষ্টেবল থেকে অ্যাসিষ্ট্যান্ট সাব ইন্সপেক্টর স্কেল চালু করে তাঁদের বেতন ১৭ থেকে ৩২ হাছার টাকা পর্যন্ত করা, ইন্সপেক্টরদের বেসিক ৪১ থেকে ৬০ হাজার, ডিএসপ পদমর্যাদা অফিসারদের ক্ষেত্রে ৫৩ থেকে ৭৮ হাজার টাকা করার কথা বলা হয়েছে রাজ্যের এই বেতন কমিশনকে। এমনকী নিজের চাকরিজীবনে একজন পুলিসকর্মী যাতে তিনবার নিজের পদোন্নতি পেতে পারেন এই আবেদনে সেই কথাও উল্লেখ করেছে পুলিশ বিভাগের সংগঠন।

আর এই আবেদন কমিশনে জমা পড়ার পরই ষষ্ট বেতন কমিশনের পক্ষ থেকে নবান্নের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছে যে, কিভাবে বা কিসের ভিত্তিতে পদোন্নতি হয় পুলিশদের? কী কী দপ্তর সেখানে রয়েছে? এইরকমই একাধিক তথ্য। কমিশনের বক্তব্য, সরকারের কাছে পাঠানো এই প্রশ্নের পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রদপ্তর ঠিক কি উত্তর দেয় – তারই অপেক্ষায় রয়েছেন তাঁরা। আর তারপরই পুলিশকর্মীদের সংগঠনের তরফে পাঠানো এই আবেদনের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে রাজ্যের ষষ্ট বেতন কমিশন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!