এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মেদিনীপুর > পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পুলিশের অভিযানে প্রচুর আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার ,গ্রেফতার পাঁচ

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পুলিশের অভিযানে প্রচুর আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার ,গ্রেফতার পাঁচ


পশ্চিম মেদিনীপুর :- গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুটো 9mm পিস্তল, চারটি ওয়ান সাটার, একাধিক আগ্নেয়াস্ত্র সহ পাঁচ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করল।পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় গত কয়েকদিন ধরেই রাজনৈতিক সংঘর্ষ চলছে। কখনও বোমাবাজী, তো কখনও গুলি চালানোর ঘটনাও ঘটেছে।

এসবের মাঝে রবিবার রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বিশেষ অভিযান চালায় পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পুলিশ। পুলিশ সুত্রে জানা যায়, মেদিনীপুর কোতওয়ালী থানার রাঙ্গামাটি ঝর্ণা ডাঙ্গা এলাকায় একটি ভাড়া বাড়িতে তল্লাসী চালিয়ে বেশকিছু আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ। পাশাপাশি ভাড়াবাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে ৫ জনকে। ধৃতদের কাছ দুটি 9mm পিস্তল, চারটি ওয়ান সাটার গান, ৩৬ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও ধৃতদের কাছ থেকে ১০ টি মোবাইল ও 2 টি মোটর সাইকেল বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এই ঘটনায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায়। বলা যায়, ভোট পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল গোটা রাজ্যের সঙ্গে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাও। বিশেষ করে কেশপুর, নারায়ণগড়, গড়বেতা, শালবনী, বেলদা সহ বিস্তৃণ অংশে রাজনৈতিক হিংসায় আহত ও নিহত হওয়ার ঘটনাও ঘটেছে।

বলা যায় যে কলকাতায় জঙ্গী ধরার পর থেকে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক নড়ে চড়ে বসেছে। ঘটনার পর জেলা পুলিশ সুপার দীনেশ কুমার এক সাংবাদিক বৈঠকে জানান, ধৃতদের বাড়ি কোলকাতা, বিহার ও দিল্লীতে। পুলিশ ধৃতদের জেরা শুরু করেছে। তবে এদের সাথে কোনো আন্তর্জাতিক চক্র জড়িত কিনা, কিংবা কোনো রাজনৈতিক যোগসূত্র আছে কিনা সেবিষয়ে কিছু জানাতে চাননি পুলিশ সুপার। ধৃতদের সোমবার আদালতে তোলা হবে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!