এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > মুকুল রায়কে আবার তীব্র আক্রমন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের

মুকুল রায়কে আবার তীব্র আক্রমন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের

রানী রাসমণি রোডের দলীয় সভা থেকে একরাশ নথি দেখিয়ে সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া নেতা মুকুল রায় দাবি করেছিলেন বিশ্ববাংলা লোগো নিয়ে ধোঁয়াশা আছে, আদতে তা রাজ্য সরকারেরই না, কারোর ব্যক্তিগত মালিকানাধীন। আর এই নিয়ে এরপর জলঘোলা কম হয় নি, এমনকি তা গড়িয়েছে আদালত পর্যন্ত। এই পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল বিধানসভায় দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সব গুজব উড়িয়ে দিয়ে দ্বর্থ্যহীন ভাষায় জানিয়ে দেন, আমি লোগো করে পয়সা নেব? ভাবতেও পারি না। এই লোগো আমি রাজ্য সরকারকে দিয়েছিলাম। সরকার এটা বিক্রি করতে পারবে না। যদি কোনওদিন সরকার এটা ছেড়ে দেয়, সেদিন এটা আমার কাছে ফিরে আসবে। এটার মধ্যে অন্যায় কীসের? এই লোগো আমার স্বপ্ন। স্বপ্ন কি কখনও বিক্রি হয়?
কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে আজ বিজেপির রাজ্য সদর দফতরে সাংবাদিক বৈঠক ডেকে মুকুল রায় আরও প্রশ্নজালে জড়িয়ে দিলেন গোটা ব্যাপারটাকে। মুকুল বাবু বলেন, রাজ্য সরকারের রাজনীতিকরণ হয়ে গিয়েছে। রাজনৈতিক উত্তরের জন্য প্রিন্সিপাল সেক্রেটারিদের ব্যবহার করা হচ্ছে। মমতা বলছেন লোগো সরকারকে ব্যবহার করতে দিয়েছেন, সরকার বলছে তাদের মালিকানাধীন। বিশ্ববাংলার মালিক কে, তা চূড়ান্ত হয়নি। গোটাটাই ধোঁয়াশা। সরকার এগিয়ে এসে সত্যিটা বলুক। এটা নিয়ে তদন্ত হওয়া দরকার, বিজেপি প্রস্তুতি নিচ্ছে।
আর তারপর এই প্রসঙ্গে নিজের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব তথা রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় তীব্র ভাষায় আক্রমন করেন মুকুল রায়কে। পার্থবাবু বলেন, বিজেপি দলের মধ্যে থেকে মুকুল অপকর্ম করছেন। কোনও ইস্যু না পেয়ে বিজেপি এভাবে সরকারের নামে কুত্‍সা রটাচ্ছে। গামছা দাদু ও চাটনি দাদুকে বলুন সত্য প্রমাণ করে দেখাক। কাগজ না দেখিয়ে সত্য প্রমাণ করে দেখান চাটনিদাদু।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!